• শিরোনাম


    যাঁদের দানে সমৃদ্ধ হচ্ছে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জাদুঘর [পর্ব-২]

    এস এম শাহনূর | বৃহস্পতিবার, ০৮ এপ্রিল ২০২১ | পড়া হয়েছে 81 বার

    ব্রাহ্মণবাড়িয়ার স্বনামধন্য জেলা প্রশাসক জনাব হায়াত-উদ-দৌলা' খাঁনের আন্তরিকতা ও অনুমোদনক্রমে শহরের দক্ষিণ মোড়াইলের এ গফুর রোডের পশ্চিম প্রান্তে (সহকারী কমিশনার সদর) সাবেক ভূমি অফিসটিকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জাদুঘরের স্থান হিসাবে নির্ধারণ করা হয়েছে। ৬৫ শতক জমির উপর প্রাথমিকভাবে ৫ কক্ষ বিশিষ্ট কাচারী অফিসটিকে জাদুঘরে রূপ দেওয়ার জন্য জেলা প্রশাসনের সার্বিক তত্বাবধানে জাদুঘর বিষয়ে বিশেষজ্ঞ টিমের দিকনির্দেশনায় ফার্নিশিং ও ডেকোরেশনের কাজ চলছে। ব্রাহ্মণবাড়িয়া জাদুঘরের স্বপ্নদ্রষ্টা শিক্ষার কারিগর, লেখক ও লোকজ সংস্কৃতির গবেষক জহিরুল ...বিস্তারিত

    ব্রাহ্মণবাড়িয়ার স্বনামধন্য জেলা প্রশাসক জনাব হায়াত-উদ-দৌলা' খাঁনের আন্তরিকতা ও অনুমোদনক্রমে শহরের দক্ষিণ মোড়াইলের এ গফুর রোডের পশ্চিম প্রান্তে (সহকারী কমিশনার সদর) সাবেক ভূমি অফিসটিকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জাদুঘরের স্থান হিসাবে নির্ধারণ করা হয়েছে। ৬৫ শতক জমির উপর প্রাথমিকভাবে ৫ কক্ষ বিশিষ্ট কাচারী অফিসটিকে জাদুঘরে রূপ দেওয়ার জন্য জেলা প্রশাসনের সার্বিক তত্বাবধানে জাদুঘর ...বিস্তারিত

    ব্রাহ্মণবাড়িয়ার স্বনামধন্য জেলা প্রশাসক জনাব হায়াত-উদ-দৌলা' খাঁনের আন্তরিকতা ও অনুমোদনক্রমে শহরের দক্ষিণ মোড়াইলের এ গফুর রোডের পশ্চিম প্রান্তে (সহকারী কমিশনার ...বিস্তারিত

    যাঁদের দানে সমৃদ্ধ হচ্ছে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জাদুঘর [পর্ব-১]

    | শনিবার, ০৩ এপ্রিল ২০২১ | পড়া হয়েছে 199 বার

    স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীকে সামনে রেখে ২০২০ সালের ৮ নভেম্বর থেকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা প্রশাসনের সার্বিক তত্ত্বাবধানে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জাদুঘরের সজ্জিতকরণের কাজ দ্রুত গতিতে এগিয়েছে। ব্রাহ্মণবাড়িয়া জাদুঘর নিয়ে লিখেছেন এস এম শাহনূর     বাংলাদেশের সাংস্কৃতিক রাজধানী খ্যাত ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহরের দক্ষিণ মৌড়াইলে, এ গফুর রোডে আলোর পথে 'ব্রাহ্মণবাড়িয়া জাদুঘর'।অসম্পূর্ণ কাজগুলোকে সম্পন্নকরণে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের ঐকান্তিক ইচ্ছার কমতি নেই।ব্রাহ্মণবাড়িয়া জাদুঘর উদ্বোধনের প্রহর গুণছে আজ। ইতিহাস বিনির্মাণের পথ হচ্ছে প্রশস্ত। এবার শুধুই একটি জাকজমকপূর্ণ আনুষ্ঠানিকতার অপেক্ষা।

    স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীকে সামনে রেখে ২০২০ সালের ৮ নভেম্বর থেকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা প্রশাসনের সার্বিক তত্ত্বাবধানে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জাদুঘরের সজ্জিতকরণের কাজ দ্রুত গতিতে এগিয়েছে। ব্রাহ্মণবাড়িয়া জাদুঘর নিয়ে লিখেছেন এস এম শাহনূর     বাংলাদেশের সাংস্কৃতিক রাজধানী খ্যাত ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহরের দক্ষিণ মৌড়াইলে, এ গফুর রোডে আলোর পথে 'ব্রাহ্মণবাড়িয়া জাদুঘর'।অসম্পূর্ণ কাজগুলোকে সম্পন্নকরণে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের ঐকান্তিক ...বিস্তারিত

    স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীকে সামনে রেখে ২০২০ সালের ৮ নভেম্বর থেকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা প্রশাসনের সার্বিক তত্ত্বাবধানে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জাদুঘরের সজ্জিতকরণের কাজ দ্রুত ...বিস্তারিত

    ব্রাহ্মণবাড়িয়া জাদুঘর অপরূপ সাজে সজ্জিত

    লেখক: মোঃ জহিরুল ইসলাম স্বপন | রবিবার, ২১ মার্চ ২০২১ | পড়া হয়েছে 114 বার

    ব্রাহ্মণবাড়িয়া জাদুঘর অপরূপ সাজে সজ্জিত হচ্ছে মুক্তিযুদ্ধ,ইতিহাস- ঐতিহ্য ও সংস্কৃতির সমন্বয়ে। গত ৮ নভেম্বরে ২০২০ থেকে মার্চ২০২১ শেষ পর্যন্ত প্রায় ৪ মাস ২২ দিন।কাজ হযেছে আনুমানিক ২ মাসের বেশি।সজ্জিতকরণ,ভেতরের ডিজাইন,ফটকসহ সার্বিক কাজ।মাঠের কাজও বেশ কষ্টের।মোট কক্ষ ৪ টি।অসাধারণ শিল্পকর্ম।শীতলপাটির ডিজাইন, বাঁশঝাড়,নদীপাড়ে কাশফুল,বিভিন্ন কম্পোজিশন,গ্রন্থাগার,বাগান, মঞ্চ,রিসিপশন কর্নার,নিদর্শন সংরক্ষণ ভিত,স্টোর রুম, উঁচু বৃক্ষরাজি, বিশাল মাঠ সবই আছে।আরও কাজ হবে, হচ্ছে।অবিরাম কাজ চলবে স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী,বাকি আর মাত্র ৩ দিন।গত পঞ্চাশ বছর বাঙালি জাতি ...বিস্তারিত

    ব্রাহ্মণবাড়িয়া জাদুঘর অপরূপ সাজে সজ্জিত হচ্ছে মুক্তিযুদ্ধ,ইতিহাস- ঐতিহ্য ও সংস্কৃতির সমন্বয়ে। গত ৮ নভেম্বরে ২০২০ থেকে মার্চ২০২১ শেষ পর্যন্ত প্রায় ৪ মাস ২২ দিন।কাজ হযেছে আনুমানিক ২ মাসের বেশি।সজ্জিতকরণ,ভেতরের ডিজাইন,ফটকসহ সার্বিক কাজ।মাঠের কাজও বেশ কষ্টের।মোট কক্ষ ৪ টি।অসাধারণ শিল্পকর্ম।শীতলপাটির ডিজাইন, বাঁশঝাড়,নদীপাড়ে কাশফুল,বিভিন্ন কম্পোজিশন,গ্রন্থাগার,বাগান, মঞ্চ,রিসিপশন কর্নার,নিদর্শন সংরক্ষণ ভিত,স্টোর রুম, উঁচু ...বিস্তারিত

    ব্রাহ্মণবাড়িয়া জাদুঘর অপরূপ সাজে সজ্জিত হচ্ছে মুক্তিযুদ্ধ,ইতিহাস- ঐতিহ্য ও সংস্কৃতির সমন্বয়ে। গত ৮ নভেম্বরে ২০২০ থেকে মার্চ২০২১ শেষ পর্যন্ত প্রায় ...বিস্তারিত

    কসবা উপজেলার নামকরণের ইতিকথা [] এস এম শাহনূর

    | মঙ্গলবার, ০২ ফেব্রুয়ারি ২০২১ | পড়া হয়েছে 218 বার

    ভারতের ত্রিপুরা রাজ্যের সীমান্ত ঘেঁষে রঘুনন্দন পাহাড়ের কোলে ঐতিহাসিক জনপদ কসবার অবস্থান।আরবী কস্বাহ্ থেকে ফার্সি কসবা শব্দের উদ্ভব।গ্রামের চেয়ে বড় কিন্তু শহরের চেয়ে ছোট বসতি বা সমৃদ্ধ গ্রাম বোঝাতে এক সময় কসবা শব্দ ব্যবহৃত হয়েছে। কসবা ছিল সুলতানি আমলের উপবিভাগীয় প্রশাসনিক কেন্দ্র। প্রশাসনিক উপ-বিভাগগুলোর মধ্যে ইকলিম, ইকতা, মুকতা, ইরতা, সোয়ার ও কসবা নামের অস্তিত্ব পাওয়া যায়।সুলতানি আমলের ‘কসবা’ কে জেলা হিসেবে চিহ্নিত করা যায়। কসবার দায়িত্বে ছিলেন একজন প্রশাসনিক কর্মকর্তা, একজন ...বিস্তারিত

    ভারতের ত্রিপুরা রাজ্যের সীমান্ত ঘেঁষে রঘুনন্দন পাহাড়ের কোলে ঐতিহাসিক জনপদ কসবার অবস্থান।আরবী কস্বাহ্ থেকে ফার্সি কসবা শব্দের উদ্ভব।গ্রামের চেয়ে বড় কিন্তু শহরের চেয়ে ছোট বসতি বা সমৃদ্ধ গ্রাম বোঝাতে এক সময় কসবা শব্দ ব্যবহৃত হয়েছে। কসবা ছিল সুলতানি আমলের উপবিভাগীয় প্রশাসনিক কেন্দ্র। প্রশাসনিক উপ-বিভাগগুলোর মধ্যে ইকলিম, ইকতা, মুকতা, ইরতা, সোয়ার ও ...বিস্তারিত

    ভারতের ত্রিপুরা রাজ্যের সীমান্ত ঘেঁষে রঘুনন্দন পাহাড়ের কোলে ঐতিহাসিক জনপদ কসবার অবস্থান।আরবী কস্বাহ্ থেকে ফার্সি কসবা শব্দের উদ্ভব।গ্রামের চেয়ে বড় ...বিস্তারিত

    রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের স্মৃতিধন্য সিলেট: এস এম শাহনূর

    | বৃহস্পতিবার, ১৯ নভেম্বর ২০২০ | পড়া হয়েছে 257 বার

    ১৯১৩ সালে বাংলা ভাষায় সাহিত্যে নোবেল পুরস্কার বিজয়ী বিস্ময়কর প্রতিভা রবীন্দ্রনাথ।কবির ভাষায় ‘আমাদের হৃদয়ে রবীন্দ্রনাথ চেতনায় নজরুল’।

    ‘মমতাবিহীন কালস্রোতে বাঙলার রাষ্ট্রসীমা হোতে নির্বাসিতা তুমি সুন্দরী শ্রীভূমি। ভারতী আপন পুণ্যহাতে বাঙালীর হৃদয়ের সাথে বাণীমাল্য দিয়া বাঁধে তব হিয়া। সে বাঁধনে চিরদিন তরে তব কাছে বাঙলার আশীর্বাদ গাঁথা হয়ে আছে।’
    [রবীন্দ্রনাথের সিলেট ভ্রমণের স্মারক গ্রন্থ, ১৯৪১ সালে প্রকাশিত, ‘কবি প্রণাম’-এ সিলেট সম্পর্কে রবীন্দ্রনাথের স্বহস্তে লিখিত এবং ‘রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর’ স্বাক্ষরিত, কিন্তু তারিখবিহীন উপরোক্ত কবিতাটি পাওয়া যায়। ...বিস্তারিত

    ১৯১৩ সালে বাংলা ভাষায় সাহিত্যে নোবেল পুরস্কার বিজয়ী বিস্ময়কর প্রতিভা রবীন্দ্রনাথ।কবির ভাষায় ‘আমাদের হৃদয়ে রবীন্দ্রনাথ চেতনায় নজরুল’।

    ‘মমতাবিহীন কালস্রোতে বাঙলার রাষ্ট্রসীমা হোতে নির্বাসিতা তুমি সুন্দরী শ্রীভূমি। ভারতী আপন পুণ্যহাতে বাঙালীর হৃদয়ের সাথে বাণীমাল্য দিয়া বাঁধে তব হিয়া। সে বাঁধনে চিরদিন তরে তব কাছে বাঙলার আশীর্বাদ গাঁথা হয়ে আছে।’
    [রবীন্দ্রনাথের সিলেট ভ্রমণের স্মারক গ্রন্থ, ...বিস্তারিত

    ১৯১৩ সালে বাংলা ভাষায় সাহিত্যে নোবেল পুরস্কার বিজয়ী বিস্ময়কর প্রতিভা রবীন্দ্রনাথ।কবির ভাষায় ‘আমাদের হৃদয়ে রবীন্দ্রনাথ চেতনায় নজরুল’।

    ‘মমতাবিহীন কালস্রোতে বাঙলার রাষ্ট্রসীমা হোতে নির্বাসিতা ...বিস্তারিত

    যে সকল বিখ্যাত ব্যক্তিবর্গ কাইতলা জমিদার বাড়িতে এসেছেন

    লিখেছেন: এস এম শাহনূর | বুধবার, ২৮ অক্টোবর ২০২০ | পড়া হয়েছে 415 বার

      ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নবীনগর উপজেলার দক্ষিণ কাইতলা ইউনিয়নে কাইতলা জমিদার বাড়িটির অবস্থান। ব্রিটিশ আমলে লর্ড কর্ণওয়ালিস কর্তৃক চিরস্থায়ী বন্দোবস্তের মাধ্যমে জমিদারী প্রথার প্রবর্তন শুরু হয়। তখন নূরনগর পরগনার কাইতলায় গড়ে উঠে বিশাল এক জমিদারি সাম্রাজ্য।অসংখ্য জ্ঞানী গুণী ও সূফী সাধকদের পদচারণে মুখরিত থাকতো এক সময়কার কাইতলা জমিদার বাড়ি।

    ✪ ভারতের পশ্চিমবঙ্গের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী জ্যোতি বসু ছোটবেলা কাইতলা জমিদার বাড়িতে এসেছিলেন:
    ভারতের মার্কসবাদী কমিউনিস্ট পার্টির নেতা,বামপন্থী রাজনীতির প্রবাদ পুরুষ জীবন্ত কিংবদন্তী কমরেড জ্যোতি বসু ...বিস্তারিত

      ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নবীনগর উপজেলার দক্ষিণ কাইতলা ইউনিয়নে কাইতলা জমিদার বাড়িটির অবস্থান। ব্রিটিশ আমলে লর্ড কর্ণওয়ালিস কর্তৃক চিরস্থায়ী বন্দোবস্তের মাধ্যমে জমিদারী প্রথার প্রবর্তন শুরু হয়। তখন নূরনগর পরগনার কাইতলায় গড়ে উঠে বিশাল এক জমিদারি সাম্রাজ্য।অসংখ্য জ্ঞানী গুণী ও সূফী সাধকদের পদচারণে মুখরিত থাকতো এক সময়কার কাইতলা জমিদার বাড়ি।

    ✪ ভারতের পশ্চিমবঙ্গের সাবেক ...বিস্তারিত

      ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নবীনগর উপজেলার দক্ষিণ কাইতলা ইউনিয়নে কাইতলা জমিদার বাড়িটির অবস্থান। ব্রিটিশ আমলে লর্ড কর্ণওয়ালিস কর্তৃক চিরস্থায়ী বন্দোবস্তের মাধ্যমে জমিদারী ...বিস্তারিত

    ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কিশোর মুক্তিযোদ্ধা আবু সালেক (বীর প্রতীক) এর স্মৃতিচারণ

    ম. কাজী এনাম, স্টাফ রিপোর্টার | মঙ্গলবার, ১৮ আগস্ট ২০২০ | পড়া হয়েছে 246 বার

    রাইফেল হাতে এই কিশোর মুক্তিযুদ্ধার ছবিটা কত জায়গায় কতবার যে দেখেছি তার কোনো ইয়ত্তা নেই। মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘরে, পোস্টারে, পেস্টুনে কিংবা ক্যালেন্ডারে। যতবারই দেখেছি ততবারই মনে মনে খুব জানতে ইচ্ছে করতো তিনি কি বেঁচে আছেন? নাকি শহীদ হয়েছেন? তবে ফেসবুকের কল্যাণে জানলাম তিনি বেঁচে আছেন। তিনি হলেন কিশোর মুক্তিযোদ্ধা আবু সালেক(বীর প্রতীক)। ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার কসবা উচ্চ বিদ্যালয় ষষ্ঠ শ্রেণীর ছাত্র ছিল আবু সালেক। মুক্তিযুদ্ধ শুরু হয়ে গেলে বই খাতা পেলে সীমানা পেরিয়ে ...বিস্তারিত

    রাইফেল হাতে এই কিশোর মুক্তিযুদ্ধার ছবিটা কত জায়গায় কতবার যে দেখেছি তার কোনো ইয়ত্তা নেই। মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘরে, পোস্টারে, পেস্টুনে কিংবা ক্যালেন্ডারে। যতবারই দেখেছি ততবারই মনে মনে খুব জানতে ইচ্ছে করতো তিনি কি বেঁচে আছেন? নাকি শহীদ হয়েছেন? তবে ফেসবুকের কল্যাণে জানলাম তিনি বেঁচে আছেন। তিনি হলেন কিশোর মুক্তিযোদ্ধা আবু সালেক(বীর ...বিস্তারিত

    রাইফেল হাতে এই কিশোর মুক্তিযুদ্ধার ছবিটা কত জায়গায় কতবার যে দেখেছি তার কোনো ইয়ত্তা নেই। মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘরে, পোস্টারে, পেস্টুনে কিংবা ...বিস্তারিত

    কুরবানীর ইতিহাস ও বিধি বিধান [] মাওলানা কাওসার আহমদ যাকারিয়া

    মাওলানা কাওসার আহমদ যাকারিয়া, অতিথি লেখক | রবিবার, ১৯ জুলাই ২০২০ | পড়া হয়েছে 288 বার

    ইসলামের অন্যতম একটি নিদর্শন হচ্ছে- কুরবানী। যা সমগ্র মানবজাতির জন্য গুরুত্বপূর্ণ একটি ইবাদত। যেমন- মহান আল্লাহ ইরশাদ করেন, “আমি প্রত্যেক উম্মতের জন্য কুরবানির নিয়ম করে দিয়েছি। যাতে তাদেরকে জীবনোপকরণস্বরূপ যেসব চতুষ্পদ জন্তু দিয়েছি সেগুলোর উপর তারা আল্লাহর নাম উচ্চারণ করে।” (সূরা হজ্জ ৩৪) মানব জাতির সেই কুরবানির বিধানটি অতীব প্রাচীন। বস্তুত মানব ইতিহাসে সর্বপ্রথম কুরবানি হযরত আদম (আঃ) এর দুই পুত্র হাবিল ও কাবিল এর দেয়া কুরবানি থেকেই কুরবানির ইতিহাসের গোড়াপত্তন হয়। ...বিস্তারিত

    ইসলামের অন্যতম একটি নিদর্শন হচ্ছে- কুরবানী। যা সমগ্র মানবজাতির জন্য গুরুত্বপূর্ণ একটি ইবাদত। যেমন- মহান আল্লাহ ইরশাদ করেন, “আমি প্রত্যেক উম্মতের জন্য কুরবানির নিয়ম করে দিয়েছি। যাতে তাদেরকে জীবনোপকরণস্বরূপ যেসব চতুষ্পদ জন্তু দিয়েছি সেগুলোর উপর তারা আল্লাহর নাম উচ্চারণ করে।” (সূরা হজ্জ ৩৪) মানব জাতির সেই কুরবানির বিধানটি অতীব প্রাচীন। বস্তুত মানব ...বিস্তারিত

    ইসলামের অন্যতম একটি নিদর্শন হচ্ছে- কুরবানী। যা সমগ্র মানবজাতির জন্য গুরুত্বপূর্ণ একটি ইবাদত। যেমন- মহান আল্লাহ ইরশাদ করেন, “আমি প্রত্যেক উম্মতের ...বিস্তারিত

    “ইতিহাসের কাঠগড়ায় হযরত মোয়াবিয়া রা.” অসাধারণ একটি গ্রন্থ : মুফতি ছালেহ বিন আব্দুল কুদ্দুস

    লেখক: মুফতি ছালেহ বিন আব্দুল কুদ্দুস শিক্ষক, জামিয়া ইসলামিয়া নিউ মডেল মাদ্রাসা, রূপসী, ঢাকা | বুধবার, ২৪ জুন ২০২০ | পড়া হয়েছে 358 বার

    নাম: ইতিহাসের কাঠগড়ায় হযরত মোয়াবিয়া রা. লেখক: আল্লামা মুফতি তাকী উসমানী অনুবাদক: মাওলানা আবু তাহের মিসবাহ প্রকাশনায়: দারুল কলম প্রকাশকাল : রজব ১৪২৪, অক্টোবর ২০০৩ পৃষ্ঠাসংখ্যা: ১৯২ মূল্য : ৬৫ টাকা সাহাবায়ে কেরাম রা. হলেন উম্মাহর সর্বশ্রেষ্ঠ ও সর্বোত্তম জামাআত। রাসূল সা.-এর সান্নিধ্যের বরকতে পুণ্যময় জীবনের অধিকারী হয়েছিলেন তাঁরা। এই মুবারক জামাআত দ্বীনের মশাল হাতে ছড়িয়ে পড়েছিলেন পৃথিবীর দিকে দিকে। তাদের ত্যাগ ও কোরবানীর বদৌলতেই আমরা ...বিস্তারিত

    নাম: ইতিহাসের কাঠগড়ায় হযরত মোয়াবিয়া রা. লেখক: আল্লামা মুফতি তাকী উসমানী অনুবাদক: মাওলানা আবু তাহের মিসবাহ প্রকাশনায়: দারুল কলম প্রকাশকাল : রজব ১৪২৪, অক্টোবর ২০০৩ পৃষ্ঠাসংখ্যা: ১৯২ মূল্য : ৬৫ টাকা সাহাবায়ে কেরাম রা. হলেন উম্মাহর সর্বশ্রেষ্ঠ ও সর্বোত্তম জামাআত। রাসূল সা.-এর সান্নিধ্যের বরকতে পুণ্যময় জীবনের ...বিস্তারিত

    নাম: ইতিহাসের কাঠগড়ায় হযরত মোয়াবিয়া রা. লেখক: আল্লামা মুফতি তাকী উসমানী অনুবাদক: মাওলানা আবু তাহের মিসবাহ প্রকাশনায়: দারুল কলম প্রকাশকাল : ...বিস্তারিত

    আজ ঐতিহাসিক পলাশী ট্র্যাজেডি দিবস

    | মঙ্গলবার, ২৩ জুন ২০২০ | পড়া হয়েছে 241 বার

    আজ ২৩ জুন, ঐতিহাসিক পলাশী ট্র্যাজেডি দিবস। এটি বাঙালি জাতির ইতিহাসে এক কালো অধ্যায়। ২৫৯ বছর আগে ১৭৫৭ সালের এই দিনে এক প্রাসাদ ষড়যন্ত্রে যুদ্ধের প্রহসন হয়েছিল ভাগীরথী নদীর তীরে পলাশীর আম্রকাননে। সেই দিন বাংলা, বিহার ও উড়িষ্যার শেষ স্বাধীন নবাব তরুণ সিরাজউদ্দৌলাকে পরাজিত করার মাধ্যমে স্বাধীনতার লাল সূর্য অস্তমিত হয়। এমন বেদনাবহ স্মৃতিকে স্মরণ করে মীরজাফর, ঘষেটি বেগমের প্রেতাত্মাদের রুখে দেয়ার দৃপ্ত শপথ নেয় জাতি। ইতিহাস পাঠে জানা যায়, ষোলো ...বিস্তারিত

    আজ ২৩ জুন, ঐতিহাসিক পলাশী ট্র্যাজেডি দিবস। এটি বাঙালি জাতির ইতিহাসে এক কালো অধ্যায়। ২৫৯ বছর আগে ১৭৫৭ সালের এই দিনে এক প্রাসাদ ষড়যন্ত্রে যুদ্ধের প্রহসন হয়েছিল ভাগীরথী নদীর তীরে পলাশীর আম্রকাননে। সেই দিন বাংলা, বিহার ও উড়িষ্যার শেষ স্বাধীন নবাব তরুণ সিরাজউদ্দৌলাকে পরাজিত করার মাধ্যমে স্বাধীনতার লাল সূর্য অস্তমিত ...বিস্তারিত

    আজ ২৩ জুন, ঐতিহাসিক পলাশী ট্র্যাজেডি দিবস। এটি বাঙালি জাতির ইতিহাসে এক কালো অধ্যায়। ২৫৯ বছর আগে ১৭৫৭ সালের এই ...বিস্তারিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২১৩১৪১৫১৬
    ১৭১৮১৯২০২১২২২৩
    ২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
  • ফেসবুকে আওয়ারকণ্ঠ২৪.কম