• শিরোনাম


    ৫ নভেম্বর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে সংবর্ধনা প্রদান করবে হাইআতুল উলইয়া বাংলাদেশ।

    | ২৩ অক্টোবর ২০১৮ | ১২:০০ পূর্বাহ্ণ

    ৫ নভেম্বর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে সংবর্ধনা প্রদান করবে হাইআতুল উলইয়া বাংলাদেশ।

    ফাইল ছবি

    কওমি মাদরাসা সরকারি স্বীকৃতির কৃতজ্ঞতা আদায়ের জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে সংবর্ধনা প্রদান করা হবে শুকরিয়া মাহফিলে।

    আজ (২২ অক্টোবর) সন্ধ্যায় গণভবনে আল্লামা আহমদ শফীর নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধি দল প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করলে এ সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত হয়।



    বৈঠকে উপস্থিত থাকা একাধিক সূত্র এসব তথ্য নিশ্চিত করেছে।

    বৈঠকে আল্লামা শাহ আহমদ শফীর নেতৃত্বে প্রতিনিধি দলে উপস্থিত ছিলেন হাইআতুল উলয়ার কো চেয়ারম্যান আল্লামা আশরাফ আলী, বেফাকের সহসভাপতি মুফতি ওয়াক্কাস, মুফতি ফয়জুল্লাহ, মাওলানা আবদুল হামিদ, মাওলানা সাজিদুর রহমান, মাওলানা মুসলেহুদ্দীন রাজু, মাওলানা আনাস মাদানী, মাওলানা বাহাউদ্দীন যাকারিয়া, মহাসচিব মাওলানা আবদুল কুদ্দুস, সহকারী মহাসচিব মুফতি নুরুল আমিন ও মুফতি জসিমুদ্দীন প্রমুখ।

    জানা যায়, সাক্ষাতে প্রধানমন্ত্রীকে সংবর্ধনার বিষয়ে আমন্ত্রণ জানালে প্রধানমন্ত্রী বলেন, এটার জন্য সংবর্ধনা নিতে আমার লজ্জা হচ্ছে। কওমি মাদরাসার স্বীকৃতি আমি আল্লাহকে খুশি করার জন্য দিয়েছি। দুনিয়াবি কোনো প্রাপ্তির জন্য নয়।

    তিনি আরও বলেন, আমার বাবা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কাকরাইল মসজিদের জায়গা, ইজতেমা মাঠের জায়গা, ইসলামিক ফাউন্ডেশন ইত্যাদি স্থাপন করেছেন পরকালের জন্য। আমিও দেশের কওমি মাদরাসার ছাত্র শিক্ষকদের কথা চিন্তা করে স্বীকৃতি দিয়েছি।

    এসময় আল্লামা আহমদ শফী কুরআন হাদিসের বিভিন্ন উদ্বৃতি প্রকাশ করে বলেন, হাল জাযাউল ইহসানি ইল্লাল ইহসান, মানুষের উপকারের প্রতিদান কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করা। হাদিসে রয়েছে, যে মানুষের কৃতজ্ঞতা আদায় করে না সে আল্লাহরও কৃতজ্ঞতা আদায় করে না। এ জন্য আমরা কৃতজ্ঞতাস্বরূপ শুকরিয়া মাহফিল করতে চাই। আমরা সেখানে আপনাকে আমন্ত্রণ জানাই।

    দ্বিপাক্ষিক এ আলোচনার মাধ্যমেই চূড়ান্ত হয়, ৫ নভেম্বর রোববার ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যাগে ব্যাপক জনসমাগমের মাধ্যমে শুকরিয়া মাহফিল করবে কওমি মাদরাসার সর্বোচ্চ অথরিটি আল হাইআতুল উলইয়া।

    বৈঠক সূত্র জানায়, আগামী শনিবার হাইআতুল উলইয়ার বৈঠকে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে আলাপের সারসংক্ষেপ প্রকাশ করা হবে এবং শুকরিয়া মাহফিলের প্রস্তুতি চূড়ান্ত করা হবে।

    বৈঠকে এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন প্রধানমন্ত্রীর সামরিক সচিব মেজর মিয়া মো. জয়নাল আবেদিন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক শেখ আবদুল্লাহ প্রমুখ।

    গণভবনে বৈঠক শেষে দেশ ও জাতির কল্যাণ কামনা করে দোয়া করেন আল্লামা আহমদ শফী।

    Facebook Comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২১৩১৪১৫
    ১৬১৭১৮১৯২০২১২২
    ২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
    ৩০৩১  
  • ফেসবুকে আওয়ারকণ্ঠ২৪.কম