• শিরোনাম


    হিফয বিভাগ খোলাসহ ৩ প্রস্তাব নিয়ে এগুচ্ছে বেফাক

    অনলাইন ডেস্ক | ০৬ জুলাই ২০২০ | ৯:১৬ পূর্বাহ্ণ

    হিফয বিভাগ খোলাসহ ৩ প্রস্তাব নিয়ে এগুচ্ছে বেফাক

    সবমিলিয়ে ৩ টি বিষয় নিয়েই তারা সরকারের কাছে অনুমতি চেয়েছেন বলে জানিয়েছে বেফাকুল মাদারিসিল আরাবিয়া বাংলাদেশ-বেফাকের সহ সভাপতি মাওলানা বাহাউদ্দিন জাকারিয়া।

    ৩ টি প্রস্তাব হলো- করোনার কারণে বন্ধ থাকা হেফজ বিভাগ চালু, শিক্ষার্থীদের কেন্দ্রীয় পরীক্ষাগ্রহণ ও আসন্ন ঈদুল আযহায় কোরবানির পশুর জবাই-সেবা ও চামড়াসংগ্রহ কার্যক্রম পরিচালনা। ইতোমধ্যে সরকারের বিভিন্ন পর্যায়ে আলোচনা ও কথা বলার পর পুরো বিষয়টি এখন সরকারপ্রধানের সম্মতির ওপর নির্ভর করছে।



    তিনি বলেন, করোনার কারণে কার্যক্রম গত কয়েক মাস ধরে বন্ধ থাকায় মাদ্রাসাগুলো আর্থিক সংকটের মুখোমুখি হয়ে পড়েছে। ফলে কুরবানির সময় যদি মাদরাসাগুলো চামড়া সংগ্রহ করতে না পারে, তাহলে আর্থিক সংকট পড়বে। আর কুরবানির পশু জবাই করে দেওয়ার মধ্য দিয়ে মাদরাসার শিক্ষার্থী ও শিক্ষকরা মানুষের সেবাও করে থাকেন।

    আজ (৬ জুলাই) সোমবার সকালে গণমাধ্যমের সাথে আলাপকালে তিনি এসব কথা বলেন। এর আগে গত (৪ জুলাই) শনিবার বেফাকের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে মজলিসে আমেলার বৈঠক হয়েছে। সভায় আর্থিকভাবে দুর্বল কওমি মাদরাসাগুলোকে সর্বমোট ৫ কোটি টাকা অনুদান দেওয়ার প্রস্তাব গৃহীত হয়।

    পুরো অর্থই বেফাকের ফান্ড থেকে ব্যয় করা হবে বলে অনুমোদনের প্রয়োজন থাকায় শনিবার বৈঠক হয়। এই বৈঠকে কওমি মাদ্রাসাগুলোর পরীক্ষা ও কোরবানির ঈদে পশু জবাই-সেবা ও চামড়া সংগ্রহের বিষয়টি সামনে রেখে ৩ সদস্যের একটি কমিটিও গঠন করেছে বেফাক। বিশেষ এই কমিটির সদস্যরা হলেন, মাওলানা বাহাউদ্দিন জাকারিয়া, মাওলানা মাহফুজুল হক ও মাওলানা নূরুল আমীন।

    মাওলানা বাহাউদ্দিন বলেন, রমজানের আগে থেকে কওমি মাদরাসাগুলো বন্ধ অবস্থায় রয়েছে। এরমধ্যে সবচেয়ে বেশি সমস্যা সৃষ্টি হয়েছে হেফজখানার জন্য। কুরআন শরীফ তো বারবার পড়ে শিখতে হয়, মুখস্ত করতে হয়, পেছনের পড়া বারবার পড়তে হয়, সে কারণে দীর্ঘদিন ধরে বন্ধ থাকলে শিক্ষার্থীদের ওপর চাপ তৈরি হচ্ছে। এ কারণে হেফজখানাগুলো খুলে দেওয়ার জন্য আমরা সরকারের কাছে আবেদন করেছি।

    তিনি বলেন, সম্পূর্ণ স্বাস্থ্যবিধি মেনে এই কার্যক্রমটি আমরা পরিচালনা করতে চাই। কেন্দ্রীয় পরীক্ষা গ্রহণ প্রক্রিয়া গত রমজানের আগে নেওয়া সম্ভব হয়নি। আর যেহেতু বোর্ডে সীমিত সংখ্যক ক্লাসের পরীক্ষা হয়, সেক্ষেত্রে স্থগিত থাকা পরীক্ষাগুলো আমরা নিতে চাই। এজন্যও মাদরাসা খোলার প্রয়োজন।

    Facebook Comments Box

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০
    ১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
    ১৮১৯২০২১২২২৩২৪
    ২৫২৬২৭২৮২৯৩০  
  • ফেসবুকে আওয়ারকণ্ঠ২৪.কম