• শিরোনাম


    স্বরণীয় বরনীয় ছায়েদুল হক

    | ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯ | ১০:০৬ অপরাহ্ণ

    স্বরণীয় বরনীয়  ছায়েদুল হক

    মোহাম্মদ ছায়েদুল হক। ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নাসিরনগরের পূর্বভাগ গ্রামে ১৯৪২ সালে ৪ই মার্চে জন্ম গ্রহণ করেন।

    গ্রাম্য প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শেষ করে বহু দৈন্যদশার মধ্য দিয়ে পেরিয়েছে উচ্চ মাধ্যমিক। তারপর কলেজ। সর্বশেষ মধ্যপ্রাচ্যের অক্সফোর্ড খ্যাত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়। মোহাম্মদ ছায়েদুল হকের অবস্থান থেকে এ পর্যায়ে অাসাটাও এক বিরাট ব্যাপার। চারপাশ প্রতিকূলে থাকার পরও তাঁর কঠিন ত্যাগ, সাধনা ও পরিশ্রমে সময়কে করে নিয়েছেন অনুকূলে। যার ফলে তিনি প্রত্যেক শিক্ষালয়ই সুনামের সাথেই উত্তীর্ণ হয়েছেন।



    মোহাম্মদ ছায়েদুল হক ১৯৬৬ সালে বঙ্গবন্ধুর ৬ দফা আন্দোলনের ঘনিষ্ট সহযোগী এবং ৬৬ সালে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সরকারি কলেজে ভিপি নিবার্চিত হন। ১৯৬৮ সালে এম এ(অর্থনীতি)ও ৭০ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এলএলবি পাস করেন। একাত্তরের স্বাধীনতা যুদ্ধে একজন সাহসী মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে সক্রিয়ভাবে অংশগ্রহন করেছেন।

    ১৯৭৩ সালে প্রথমবারের মত আওয়ামীলীগের মনোনয়ন পেয়ে নাসিরনগর আসন থেকে সংসদ সদস্য নিবার্চিত হয়েছেন। ১৯৮৬ সালের নিবার্চনে পরাজিত হয়েছেন। ১৯৯৬ ,২০০১ ও ২০০৮,২০১৪ সালের নিবার্চনে আওয়ামীলীগের প্রার্থী হিসাবে অংশগ্রহন করে সংসদ সদস্য নিবার্চিত হন।

    তিনি ২০১৪ সালের ১২ জানুয়ারি মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী হিসেবে দায়িত্বভার গ্রহন করেন। আওয়ামীলীগের এ বর্ষীয়ান নেতা এর আগে খাদ্য,দূর্যোগ্য ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ এবং স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি ছিলেন। মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী হিসেবে মোহাম্মদ ছায়েদুল হক মৎস্য খাতে ব্যাপক উন্নয়ন সাধন করেন। তিনি বর্তমান আওয়ামীলীগের শাসনামলে নাসিরনগরে ব্যাপক উন্নয়ন করেছেন।

    গণ মানুষের নেতা ছিলেন মোহাম্মদ ছায়েদুল হক। প্রায় অাঁড়াই লাখ মানুষ স্বপ্ন দেখতেন মোহাম্মদ ছায়েদুল হকের চোঁখ দিয়ে। তিনি সে স্বপ্ন বাস্তবায়নও করতেন। মোহাম্মদ ছায়েদুল হক ছিলেন নাসিরনগরে এক বটবৃক্ষ। সে বটবৃক্ষের নিচে অাশ্রয় নিয়েছিল নাসিরনগরের আপামর জনতা। মোহাম্মদ ছায়েদুল হক ছিলেন একটি প্রাণ অার সর্বসাধারণ ছিলনে শরীরের একেকটা অঙ্গ।

    মোহাম্মদ ছায়েদুল হকরা যুগে যুগে আসেনা বরং কালেভদ্রে। তাঁরা লাইনে দাঁড়ায়না বরং তাঁদের থেকে লাইন শুরু হয়। নাসিরনগরের ইতিহাসে স্বর্ণ যুগ সৃষ্টিকারী মোহাম্মদ ছায়েদুল হক। মোহাম্মদ ছায়েদুল ততদিনই থাকবে যতদিন নাসিরনগর থাকবে।

    মৎস ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী থাকা অবস্থায় ২০১৭ সালে ১৬ই ডিসেম্বর মোহাম্মদ ছায়েদুল হক না ফেরার দেশে চলে গেছেন। তাঁর চলে যাওয়াটা যদিও স্বাভাবিক ব্যাপার তবে তাঁর অনুপস্থিতি অপূরণীয়।

    Comments

    comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২১৩
    ১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
    ২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
    ২৮২৯৩০৩১  
  • ফেসবুকে আওয়ারকণ্ঠ২৪.কম