• শিরোনাম


    সোনাগাজীর মানব পাচারকারী প্রতারক জয়নালের বিচার চায় তার বোন সহ ভুক্তভোগীরা

    গাজী মোহাম্মদ হানিফ, সোনাগাজী (ফেনী) প্রতিনিধি :- | ১২ নভেম্বর ২০২০ | ১২:২০ পূর্বাহ্ণ

    সোনাগাজীর মানব পাচারকারী প্রতারক জয়নালের বিচার চায় তার বোন সহ ভুক্তভোগীরা

    সোনাগাজী উপজেলার নবাবপুর ইউনিয়নের চিহ্নিত মানব পাচারকারী, মাটিদস্যু, প্রতারক, ঠকবাজ জয়নালের বিচার চায় তার নিজ বোন রেহানা আক্তার সহ ভুক্তভোগী ৩ নারী।

    ১১ই নভেম্বর সোনাগাজী উপজেলার ফতেহপুর বারেক মৌলভী বাড়ীতে সাংবাদিকদের নিকট নবাবপুরের মৃত রুহুল আমিনের ছেলে মানব পাচারকারী ও প্রতারক জয়নাল আবেদীন (৫০) এর বিরুদ্ধে অভিযোগ করেন- তার নিজ বোন রেহানা আক্তার সহ ৩ নারী।



    রেহানা আক্তার জানান- জয়নাল আমার নিজ ভাই সে আমার ছেলে ফারহানকে প্রলোভন দিয়ে ইউরোপে নেওয়ার কথা বলে আমার কাছ থেকে ২ লাখ ৯০ হাজার টাকা নিয়েছে। পাউণ্ডল্যাণ্ড নামক দেশে নিবে বলে আমার ছেলেকে দরিদ্র দেশ সোমালিয়ায় নিয়ে যায়। কথা ছিল ছেলেকে টাইলসের কাজ দিবে, মাসে ৩০ হাজার টাকা করে বেতন দিবে। সেখানে নিয়ে কোন কাজকর্ম দেয়নি। বরং একটি ঘরে তালাবন্ধ রেখে ঠিকমতো খাবারদাবার না দিয়ে নির্মম নির্যাতন করেছে। মাঝেমধ্যে তাকে ডেইলি লেবার হিসেবে খাটায়। ছেলেটি মোবাইলে কল করে সবসময় কান্নাকাটি করছে। ছেলেকে অনেক কষ্টে ধারকর্জ করে বিদেশ পাঠিয়েছি টাকাপয়সা রোজগারের আশায় অথচ আমি দেশ থেকে তার জন্য সবসময় টাকা পাঠাতে হয়। আমি আমার একমাত্র ছেলেকে ফেরত চাই এবং এই প্রতারক দালাল জয়নালের উপযুক্ত বিচার চাই।

    ফতেহপুর গ্রামের মোর্তুজা হোসেনের স্ত্রী শাহেনা বেগম বলেন- স্ট্যাম্পে লিখিত এগ্রিমেন্টের মাধ্যমে আমার ছেলে ফখরুলকে জয়নালের মাধ্যমে ৩ লাখ ২০ হাজার টাকার বিনিময়ে দালালের প্রলোভনে বিদেশে পাঠাই। আমার বিএ পাশ ছেলেকে জয়নাল সোমালিয়ায় নিয়ে কাজকর্ম না দিয়ে মাঝেমধ্যে রাজমিস্ত্রি জোগালী হিসেবে ডেইলি লেবার খাটায় ও নির্মমভাবে নির্যাতন করে। ছেলেটি অনেক কষ্টে আছে। ছেলের দুরাবস্থায় আমরাও কষ্টে অাছি। কথা ছিলো পাউন্ডল্যাণ্ড নিয়ে পাইপ পিটারের কাজ দিবে, আটঘন্টা ডিউটি ৪০০ ডলার বেতন দিবে, খাওয়া ও থাকা ফ্রি। ২০২০ সালের ৫ই জানুয়ারি বিদেশ নেয় অথচ আজ পর্যন্ত তার চাকুরী হয়নি। আমি আমার ছেলে ফেরত চাই ও দালাল জয়নালের উপযুক্ত বিচার চাই।

    নবাবপুরের শুক্কুর মিয়ার স্ত্রী রেখা বেগম জানায়- দালাল জয়নাল আমার স্বামীকে প্রতারণা করে ৩ লাখ টাকায় বিদেশ নেয়। তাকে ভিসা না দিয়ে ৩ ঘন্টা সোমালিয়ায় জেল খাটায়। সে আজকে ১১ মাস বিদেশে ভাতে পানিতে কষ্ট করছে। আমরাও দেশে থেকে ভাতপানিতে কষ্ট করছি। আমি আমার স্বামীকে ফেরত চাই এবং এই দালাল জয়নালের উপযুক্ত বিচার চাই।

    সোমালিয়া থেকে ভিডিও কলে ফারহান ফখরুল ও শুক্কুর জানায়- আমরা ধারকর্জ করে বিদেশ এসেছি, দালাল জয়নালের লোকজন আমাদের ৩ জন সহ মোট ২২ জন বাংলাদেশিকে আটকে রেখেছে, কাজকর্ম দেয়নি, ঠিকমতো খাবারদাবারও দেয়না, আমাদের মোবাইল ও টাকা পয়সা তারা নিয়ে গেছে। তারা আমাদের কাছে আরো ৪/৫ লাখ টাকা দাবি করছে এবং টাকা না দেওয়ায় নির্মম নির্যাতন করছে। মিথ্যা অভিযোগ দিয়ে পুলিশের হাতে তুলে দিয়েছে। পরে আমরা তাদের কথামতো চলবো বলে অনেক কষ্টে ছাড়া পাই।

    এই বিষয়ে জানতে চাইলে নবাবপুর ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব দেলোয়ার হোসেন জানান- ৩ লাখ টাকা করে নিয়ে তাদের বিদেশ পাঠিয়েছে জয়নাল। তারা বলছে তাদের চাকুরীবাকরি দেয়নি, তারা সেখানে কষ্টে আছে, বাড়ীতে পরিবার পরিজনও কষ্টে আছে। অপরদিকে জয়নাল বলছে তারা ঠিকমতো চাকুরী করছে, তাদের কোন সমস্যা নাই। মৌখিক অভিযোগের ভিত্তিতে তাদের ইউনিয়ন পরিষদে ডেকেছি। ৯ লাখ টাকার মামলা সমাধান করার এখতিয়ার নেই পল্লী আদালতের তাই তাদের লিখিত অভিযোগ নেয়া হয়নি।

    ভুক্তভোগী প্রবাসীদের পক্ষে তাদের পরিবারের সদস্যরা জানান- পল্লী আদালতে উপযুক্ত বিচার না পেলে তারা সোনাগাজী মডেল থানা অথবা ফেনীর আদালতে মামলা দায়ের করবেন, তারা দালাল জয়নাল ও তার সহযোগীদের বিরুদ্ধে ইতিমধ্যে মামলা করার প্রস্তুতি নিচ্ছেন।

    অভিযুক্ত আদম ব্যবসায়ী জয়নাল জানায়- ফারহান শুক্কুর ও ফখরুলকে তিনি বিদেশে পাঠিয়েছেন, তারা ঠিকমতো চাকুরীবাকরি করছে, বিদেশে তারা কষ্ট করছে এই অভিযোগটি মোটেও সত্য নয়।

    Facebook Comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২১৩
    ১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
    ২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
    ২৮২৯৩০  
  • ফেসবুকে আওয়ারকণ্ঠ২৪.কম