• শিরোনাম


    সুন্দরগঞ্জে সমবায় সমিতির আড়ালে জমজমাট দাদন ব্যবসা

    জাহিদ হাসান জীবন, গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধিঃ | ২১ অক্টোবর ২০২০ | ৩:০১ অপরাহ্ণ

    সুন্দরগঞ্জে সমবায় সমিতির আড়ালে জমজমাট দাদন ব্যবসা

    গাইবান্ধায় সুন্দরগঞ্জ উপজেলার শান্তিরাম ইউনিয়নের পরান গ্রামে সমবায় সমিতির) অনুমোদন নিয়ে এর আড়ালে জমজমাট দাদন ব্যবসা পরিচালনার অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় প্রভাবশালী নুরুন্নবী সরকারের বিরুদ্ধে। পুর্ব আশার আলো সার্বিক গ্রাম উন্নয়ন সমবায় সমিতি লিমিটেড নাম দিয়ে একটি নাম স্বর্বস এনজিও খুলে তৈরি করেছেন প্রতারনার ফাঁদ। স্থানীয়ভাবে প্রভাবশালী হওয়ায় দাদন ব্যবসার পাশাপাশি নানা প্রলোভন দিয়ে এলাকার সাধারন মানুষদের কাছ থেকে বিভিন্ন মেয়াদে ডিপিএস বা আমানতের কথা বলে হাতিয়ে নিচ্ছেন লক্ষ লক্ষ টাকা। দীর্ঘদিন থেকে এসব কারবার চললেও প্রভাবশালি হওয়ায় সমবায় বা কোন প্রতিষ্টান নেননি তার বিরুদ্ধে কোন ব্যবস্থা। এলাকাবাসির পক্ষ থেকে একাধিকবার অভিযোগ করেও হয়নি কোন সুরাহা।

    ওই গ্রামের হাবিবুর রহমান জানান, র্দীঘদিন থেকে নুরুন্নবী সরকার এনজিওর নামে সুন্দরগঞ্জ উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় কিস্তির ব্যবসা চালাচ্ছেন। সেই সাথে ডিপিএস করে দ্বি-গুন লাভ দেয়ার প্রলোভন দেখিয়ে সাধারন মানুষের কাছ থেকে অর্থ হাতিয়ে নিচ্ছেন।মোজাম্মেল হক জানান, নিদিষ্ট কোন অফিস বা সাইনবোর্ড না থাকলেও শুধু এনজিওর নাম দিয়ে পাশ বই তৈরি করে দীর্ঘদিন থেকে নুরুন্নবী সরকার সমবায়ি কারবারের নামে এর আড়ালে দাদন ব্যবসা চালিয়ে আসছেন। আব্দুর রহমান ও আনসার আলী জানান, দ্রুত এসব কারবার বন্ধসহ ব্যবস্থা না নিলে কথিত এ এনজিওতে রাখা আমানত হারিয়ে পথে বসতে পারেন অনেকে।
    অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাইলে কথিত এনজিওর পরিচালক নুরুন্নবী সরকার অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, কিস্তি আদায় ও আমানতসহ সব করতে পারবো এ ধরনের কাগজপত্র আমার আছে বলে জানান।
    সমবায় সমিতির অনুমোদন নিয়ে দাদন ব্যবসা পরিচালনার অভিযোগ বিষয়ে জানতে চাইলে জেলা সমবায় কর্মকর্তা ফেরদৌস উর রহমান জানান, আমিও এমন অভিযোগ শুনেছি দ্রুত তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।



    Facebook Comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২
    ১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
    ২০২১২২২৩২৪২৫২৬
    ২৭২৮  
  • ফেসবুকে আওয়ারকণ্ঠ২৪.কম