• শিরোনাম


    সুন্দরগঞ্জে মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসারসহ প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে ব্যাপক দুর্নীতির অভিযোগ

    রিপোর্ট জাহিদ হাসান জীবন , সুন্দরগঞ্জ (গাইবান্ধা) প্রতিনিধিঃ | ০৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯ | ৪:১৮ অপরাহ্ণ

    সুন্দরগঞ্জে মাধ্যমিক  শিক্ষা অফিসারসহ প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে ব্যাপক দুর্নীতির অভিযোগ

    গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মাহমুদ হোসেন মন্ডল ও কে কৈ কাশদহ আদর্শ উচ্চ বিদ্যালযের প্রধান শিক্ষক ওবায়দুল্লাহ্ সরকারের বিরুদ্ধে যোগসাজশীমূলক ব্যপক জালিয়াতি, অনিয়ম দূর্নীতি, সেচ্ছাচারিতাসহ ক্ষমতা অপব্যবহারের অভিযোগ রয়েছে।

    মঙ্গলবার দুপুরে সুন্দরগঞ্জ রিপোর্টার্স ক্লাব’র অস্থায়ী কর্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে এসব অভিযোগ উত্থাপন করেন বিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি আব্দুল জলিল সরকারের পুত্র ও সহ শিক্ষক কোহিনুর খাতুনের স্বামী মুকুল মিঞা। তিনি তার লিখিত বক্তব্যে উল্লেখ করেন- বিগত ৩ জানুয়ারী ১৯৯৩ তারিখে বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষক পদে যোগদান পত্র দেখিয়ে নির্বিগ্নেই বহাল তবিয়্যতে সরকারী বেতনাদী ভোগ করছেন ওবায়দুল্লাহ্ধসঢ়; সরকার।



    এছাড়া, শাখা শিক্ষক পদে আহাম্মাদুল ইসলাম’র তৃতীয় বিভাগে এইচএসসি পাশের সনদপত্রকে দ্বিতীয় বিভাগ দেখিয়েছেন। অথচ, ৭ জানুয়ারী ১৯৯৩ তারিখে কার্যনির্বাহী কমিটি গঠন ও বিদ্যালয় পরিচালনার জন্য একজন প্রধান শিক্ষক নিয়োগের সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।
    এদিকে,২০০২ সাল থেকে ২০১৪ সাল পর্যন্ত বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটি না থাকায় ২০১৪ সালের ১১ সেপ্টেম¦র প্রধান শিক্ষক ম্যানেজিং কমিটি গঠনের লক্ষে নির্বাচনের জন্য প্রিজাইডিং অফিসার চেয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবরে আবেদন করলে পরবর্তীতে উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অফিসারকে প্রিজাইডিং অফিসার নিয়োগ করেন। কিন্তু, এ প্রক্রিয়া পরিচালনা না করে প্রধান শিক্ষক দীর্ঘ দিন দেশের বাইরে অবস্থান করেন।
    এ ব্যপারে প্রিজাইডিং অফিসার ও উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অফিসার আসাদুজ্জামান ও পরবর্তীতে উপজেলা মৎস্য অফিসার হাসান সাজ্জাদ ভিন্ন ভিন্নভাবে প্রতিবেদন দাখিল করেন। এসব প্রতিবেদনের সঙ্গে একমত পোষণ করে বিধি বহির্ভূতভাবে যথাযথ কর্তৃপক্ষের অনুমোদন ব্যতিরেকে প্রধান শিক্ষক দেশের বাইরে যাওয়ায় তাঁর বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য উপজেলা নির্বাহী অফিসার রাশেদুল হক প্রধান জেলা শিক্ষা অফিসার বরাবরে অনুরোধ জানান। কিন্তু, রহস্যজনক কারণে সে ব্যবস্থা গ্রহণ করেন নি। এরপর উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার ও বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক যোগসাজশে ম্যানেজিং কমিটি গঠনের লক্ষ্যে পূনঃতফশীল ঘোষনা না করেই অত্যন্ত গোপনে ম্যানেজিং কমিটি গঠন অতঃপর ঢাকায় অবস্থানরত রশিদুন্নবী রশিদকে সভাপতি দেখিয়ে অবৈধভাবে রাতারাতি ম্যানেজিং কমিটি গঠনের মাধ্যমে ব্যাপক দূর্নীতির, মাধ্যমে বিদ্যালয় পরিচালনা করছেন।
    এসব দুর্নীতিমূলক কর্মকান্ড প্রতিরোধসহ শতভাগ স্বচ্ছতার ভিত্তিতে প্রকৃত শিক্ষার্থী অভিভাবকদের প্রত্যক্ষ ভোটে ম্যানেজিং কমিটি গঠনের জন্য অভিযোগ দায়ের করলে। তার স্ত্রী কোহিনুর খাতুনের বেতনাদি বন্ধ করে দিয়েছেন। এব্যপারে তিনি প্রশাসনের আশুহস্থখেপ কমনা করেন।

    Facebook Comments Box

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০
    ১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
    ১৮১৯২০২১২২২৩২৪
    ২৫২৬২৭২৮২৯৩০৩১
  • ফেসবুকে আওয়ারকণ্ঠ২৪.কম