• শিরোনাম


    সুন্দরগঞ্জে ফের বন্যা,বেড়েছে অনেক ক্ষয়ক্ষতি

    রিপোর্ট জাহিদ হাসান জীবন, সুন্দরগঞ্জ (গাইবান্ধা) প্রতিনিধি: | ০১ অক্টোবর ২০২০ | ১:২০ অপরাহ্ণ

    সুন্দরগঞ্জে ফের বন্যা,বেড়েছে অনেক ক্ষয়ক্ষতি

    গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জে ফের বন্যায় রাস্তাঘাট,ব্রীজ-কালভার্ট,ফসলি জমিসহ ছোট -বড় অনেক কৃষি খামার তছনছ হয়েছে।

    জানা যায়,গত ২১ সেপ্টেম্বর থেকে ২৮ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত একটানা ৮ দিনে অতিরিক্ত মাএায় ঘনঘন বৃষ্টি হয়।যার ফলে উজানে থেকে জমে থাকা পানি ভাটিতে আসায় রাস্তাঘাট,কালভার্ট,ছোট ছোট ব্রীজসহ সকল প্রকার কৃষিফসলাদি জমি নিমজ্জিত হয়।



    সুন্দরগঞ্জ উপজেলার বামনডাঙ্গা ইউনিয়নের জামাল গ্রামের কৃষক মোকবুল হোসেন জানান,৮দিনে একটানা বৃষ্টি হওয়ায়,উজানের পানি ভাটির দিকে নেমে আসে, কিন্তু কালভার্ট গুলো বন্ধ করে রেখে অন্য পাশে দিয়ে রাস্তা কেটে দিলে, আমার আবাদি ১ বিঘা ২০ শতক জমি মাটির পলি পরে ফসলসহ নিমজ্জিত হয়েছে। যেখানে পানি শুকিয়ে যাওয়ার পরেও অবশিষ্ট ফসলাদি পওয়া কোনো রকমেই সম্ভব নয়।

    এদিকে ফলগাছা গ্রামের কৃষক সুবাস চন্দ্র বলেন,দীর্ঘ দিন থেকে রাতারাতি পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় আমার আবাদি জমিসহ অনেক পুকুর ভরে যাওয়ার কারনে অনেক টাকার মাছের ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। যা সামলিয়ে ওঠা খুব কষ্টের।

    ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রাম্য এলাকা ঘুরে ফিরে দেখা গেছে প্রায় ৭ শতাধিক বাড়িতে পানি উঠে তারা পানিবন্দি হয়ে পড়েছে।

    এ ব্যাপারে কৃষি অফিসার সৈয়দ মাহমুদ রেজা-ই মুন্না’র সাথে মুঠোফোনে কথা হলে তিনি জানান, উপজেলায় ১৫ হেক্টর জমির ফসলাদি পানিতে নিমজ্জিত হয়েছে, পানি শুখিয়ে গেলে কমপক্ষে ১০ দিন পরে সার প্রয়োগ করতে হবে।

    এদিকে বন্যার্ত এলাকার মানুষজনের সাহায্য ও ত্রানের কথা জানতে উপজেলার বামনডাঙ্গা ইউপি চেয়ারম্যান নজমুল হুদাকে কয়েকবার ফোন করলেও তিনি ফোন রিসিভ করেনি।

    Facebook Comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২
    ১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
    ২০২১২২২৩২৪২৫২৬
    ২৭২৮  
  • ফেসবুকে আওয়ারকণ্ঠ২৪.কম