• শিরোনাম


    সুন্দরগঞ্জে জনসমাগম এড়িয়ে চলার নির্দেশনা মানছে না কেউই

    জাহিদ হাসান জীবন, সুন্দরগঞ্জ (গাইবান্ধা) প্রতিনিধি: | ২৪ মার্চ ২০২০ | ৬:৩১ অপরাহ্ণ

    সুন্দরগঞ্জে জনসমাগম এড়িয়ে চলার নির্দেশনা মানছে না কেউই

    করোনাভাইরাস প্রতিরোধে সতর্কতা হিসেবে জনসমাগম এড়িয়ে চলার সরকারিভাবে নির্দেশনা মানা হচ্ছে না গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলায়। উপজেলার হাট-বাজারসহ গুরুত্বপূর্ণ স্থানে লোকজনের উপস্থিতি আগের মতোই রয়েছে। হোটেলগুলোতে সকাল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত মানুষের ভিড় লেগেই থাকছে। লোকজন জনসমাগম এড়িয়ে সতর্কভাবে চলছে না। এ ক্ষেত্রে প্রশাসনের নজরদারির অভাব রয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

    উপজেলার হাট-বাজারে লোকসমাগমের ওপর এখনো বিধি-নিষেধ জারি করেনি স্থানীয় প্রশাসন। তা ছাড়া উপজেলায় চলতি মার্চের প্রথম সপ্তাহ থেকে গত শুক্রবার পর্যন্ত বিদেশ থেকে শতাধিকের বেশি লোক বাড়ি ফিরেছেন। তাঁদের হোম কোয়ারেন্টিনে থাকার নির্দেশ দেওয়া হলেও বেশির ভাগ ব্যক্তিই তা মানছেন না।



    বড় যে সমস্যা হলো, উপজেলার হাট-বাজারগুলোতে লোকসমাগম নিয়ন্ত্রণে প্রশাসন কোনো পদক্ষেপ নিচ্ছে না। উপজেলার সর্ববৃহৎ মীরগঞ্জের হাটসহ বিভিন্ন হাট বাজারে প্রতিদিনে সকাল থেকে রাত পর্যন্ত হাজার হাজার মানুষের সমাগম ঘটে। এখান থেকে করোনাভাইরাস গ্রাম-গঞ্জে ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা রয়েছে।

    উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা অফিসার ডা. আশরাফুজ্জামান জানান, বিদেশ থেকে আসা সবাইকে কোয়ারেন্টিনে রাখার ব্যবস্থা করা হচ্ছে। তবে অনেকেই তা মানতে চাচ্ছেন না।

    এদিকে করোনাভাইরাসকে পুঁজি করে চালসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দাম বৃদ্ধির অভিযোগ উঠেছে। গত ৩/৪ দিনের ব্যবধানে স্থানভেদে প্রতি কেজি চালের দাম বেড়েছে ১০ টাকা পর্যন্ত। পেঁয়াজ ৩০ টাকা থেকে বেড়ে ৫০-৬০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। তেল-ডালসহ অন্যান্য পণ্যের দাম একইভাবে বাড়ানো হয়েছে। এমন পরিস্থিতিতেও সকল বাজার নিয়ন্ত্রণে কোনো নজরদারি নেই। ফলে নিম্ন আয়ের মানুষ বিপাকে পড়েছে।

    ফলগাছা হাটের জাহাঙ্গীর আলম বলেন, প্রশাসনের এবং ইউনিয়ন পরিষদের পক্ষ থেকে করোনা প্রতিরোধে সচেতনতামূলক তেমন কোনো প্রচারণা চালানো হচ্ছে না। শুধু দু একদিন মাইকিং চালানো হয়েছে। ফলেই লোকজন আগের মতোই চলাফেরা করছে।

    মাহফুজুর রহমান পিন্টু বলেন, করোনাভাইরাস প্রতিরোধে সরকারের দিকনির্দেশনাগুলো বাস্তবায়নে প্রশাসন ও সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন পরিষদের নজরদারি থাকা দরকার। কিন্তু সুন্দরগঞ্জে তেমনটা দেখা যাচ্ছে না।

    এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) কাজী মো.লুতফুল হাসানের সঙ্গে মোবাইল ফোনে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

    Facebook Comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০
    ১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
    ১৮১৯২০২১২২২৩২৪
    ২৫২৬২৭২৮২৯৩০৩১
  • ফেসবুকে আওয়ারকণ্ঠ২৪.কম