• শিরোনাম


    সিলেটের সাবেক সিটি মেয়রের মৃত্যুতে গোয়াইনঘাট উপজেলা চেয়ারম্যানের শোক

    এম এ.রহিম, উপজেলা প্রতিনিধি গোয়াইনঘাট(সিলেট) | ১৫ জুন ২০২০ | ৫:০০ অপরাহ্ণ

    সিলেটের সাবেক সিটি মেয়রের মৃত্যুতে গোয়াইনঘাট উপজেলা চেয়ারম্যানের শোক

    গোয়াইনঘাট উপজেলা চেয়ারম্যান জনাব ফারুক আহমেদ আওয়ার কন্ঠ কে জানান,
    আমি একজন অভিভাবক হারালাম, সিলেট তথা দেশবাসী একজন সত্যিকারের দেশ প্রেমিক কে হারাল যা পূরণ হবার নয়।

    বদর উদ্দিন আহমদ কামরান ভাই এভাবে ফাঁকি দিয়ে চিরতরে চলে গেলেন।



    আজ ১৫ জুন/২০ সোমবার ভোর ৬ ঘটিকায় পূবালী ব্যাংকের ছোট ভাই কাউছারের ফোনে ঘুম ভাঙ্গলো এবং কান্না বিজড়িত কন্ঠে কামরান ভাইয়ের মৃত্যুর সংবাদটি আমাকে জানালো
    ( ইন্নালিল্লাহি———— রাজিউন)।

    ২০১৯ সাল ৫ম উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে আমি যখন নিশ্চিত দলীয় মনোনয়ন হতে বিভিন্ন ষড়যন্ত্রের কারণে বঞ্চিত হলাম এবং সিদ্ধান্তহীনতায় ভূগছিলাম তখন নিজে নিজে শপথ করেছিলাম দলীয় মনোনয়ন না পেলে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে আর নির্বাচন করবো না।

    এ দিকে হাজার হাজার মানুষ ফোনে এবং সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আমাকে নির্বাচন করার জন্য চাপ দিচ্ছিল অন্যদিকে স্রোতের প্রতিকূলে নির্বাচন করবো না এমন শপথ এবং পরিবারের সকলের বাঁধা এ ধরনের একটি কঠিন পরিস্থিতে স্বরনাপন্ন হলাম আমার শ্রদ্ধেয় নেতা বদর উদ্দিন আহমদ কামরান ভাইয়ের কাছে।

    সবকিছুই উনাকে খুলে বলার পর তিনি আমাকে বললেন, “আপনি এবছর নির্বাচন করেন আমার বিশ্বাস আপনি বিপুল ভোটে জয়লাভ করবেন।
    আপনার উপজেলার বিভিন্ন মানুষের সাথে কথা বলে জানতে পারছি মাঠের অবস্থা খুবই ভালো, জনগণ আপনাকে চায়। নির্বাচন করার বিন্দুমাত্র ইচ্ছা থাকলে এ বছরই সুযোগকে কাজে লাগান। ভবিষৎতে এরকম সুযোগ নাও আসতে পারে।
    আপনার, আমার স্বাস্থ্যের অবস্থা ভালো নয়, তাই অপেক্ষা করার সুযোগ নেই।
    আমাদের দুজনের হার্টের সমস্যা আর কতদিন বাঁচবো জানিনা।
    যদি মারা যান তাহলে একটি অতৃপ্তি থেকে যাবে যে কখনও জয়ী হতে পারলাম না”।

    উনার কথাগুলো শুনে সাথে সাথে সিদ্ধান্ত নিলাম নির্বাচন করবো, শেষ পর্যন্ত নির্বাচন করে ১০ হাজারের বেশী ভোটের ব্যবধানে জয় লাভ করলাম।

    কে জানে আপনার এ কথাগুলো বাস্তবে রুপ লাভ করবে? আপনি নিজে বলেছিলেন শরীরের যে অবস্থা বয়সও হয়েছে আমার মনে হয় বেশীদিন বাঁচবো না। অন্ততপক্ষে আপনার নির্বাচনে একবার জয়ী হয়েছেন এটা দেখে যাই” ঠিকই আপনি আমার জয়টা দেখে এত তাড়াতাড়ি চলে যাবেন আমি ভাবতেও পারিনি।

    আজ থেকে ১৬ মাস পূর্বের কথাগুলো সত্যিই প্রমাণ করে আমাদেরকে ফাঁকি দিয়ে চলে গেলেন না ফেরার জগতে।

    এখন যদি আমিও মারা যাই তাহলে আর কোন আফসোস থাকবে না।

    পরপারে আপনার সাথে দেখা হবে আল্লাহ যেন আপনাকে জান্নাতবাসী করেন এবং শোক সন্তপ্ত পরিবারকে এ শোক সহিবার ক্ষমতা দান করেন– আমীন

    সংযুক্ত ছবিটি নির্বাচিত হবার পরে উনার সিলেটের বাসায় ফুল দেয়ার প্রাক্কালে,ছবিটি স্মৃতির আয়নায় চির ভাস্বর হয়ে থাকবে।

    Facebook Comments Box

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০
    ১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
    ১৮১৯২০২১২২২৩২৪
    ২৫২৬২৭২৮২৯৩০  
  • ফেসবুকে আওয়ারকণ্ঠ২৪.কম