• শিরোনাম


    রমজানের আগেই মসজিদ খুলে নির্বিঘ্নে নামাযের পরিবেশ সৃষ্টি করুন: জাকারিয়া নোমান ফয়জী

    হাবিব আনওয়ার, চট্টগ্রাম প্রতিনিধি | ১৬ এপ্রিল ২০২০ | ৫:২৯ অপরাহ্ণ

    রমজানের আগেই মসজিদ খুলে নির্বিঘ্নে নামাযের পরিবেশ সৃষ্টি করুন: জাকারিয়া নোমান ফয়জী

    আসন্ন পবিত্র রমজানুল মোবারকের আগেই নামায আদায়ে মুসল্লীর সংখ্যা সীমাবদ্ধতার নির্দেশ প্রত্যাহার করে মসজিদ খুলে দিতে সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন হাটহাজারী ওলামা পরিষদের সাংগঠনিক সম্পাদক, হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশ হাটহাজারী শাখার সাধারণ সম্পাদক ও মেখল হামিয়ুচ্ছুন্নাহ সুন্নাহ মাদরাসার সিনিয়র শিক্ষক মাওলানা জাকারিয়া নোমান ফয়জী।

    আজ ১৬ ই এপ্রিল বুধবার সংবাদমাধ্যমে প্রেরিত এক বিবৃতিতে এ আহবান জানিয়ে বলেন, যে পাঁচটি স্তম্ভের ওপর ইসলামের ভিত্তি তার অন্যতম রোজা। নামাজের পরই রোজার স্থান। মাহে রমজান রহমত-বরকত, মাগফিরাত ও নাজাতের মাস। মানুষের দৈহিক, মানসিক, আত্মিক, নৈতিক ও আধ্যাত্মিক উন্নয়নের মাস রমজান। ইবাদাত বন্দেগীর মাধ্যমে আল্লাহর নৈকট্য লাভের জন্য রমজানের কোন তুলনা হয় না।



    সংযম, সহিষ্ণুতা ও আত্মশুদ্ধির অনন্য চেতনায় ভাস্বর পবিত্র রমজান। মহানবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম এ মাসকে এক সুমহান মাস হিসেবে অভিহিত করেছেন। অন্য মাস অপেক্ষা রমজান মাসের শ্রেষ্ঠত্বের বড় কারণ এই যে, এ মাসে বিশ্ব মানবতার মুক্তি সনদ পবিত্র কোরআনে কারিম নাজিল হয়েছে। যারা সাধারণ সময়ে নামায পড়েনা,মসজিদে আসে না তারাও এ মাসে মসজিদমুখী হয়। নামায আদায় করে। তাই রমজান মাস আসার আগেই মসজিদ উন্মুক্ত করে দিয়ে নির্বিঘ্নে ইবাদাত বন্দেগীর সুযোগ করে দিন।

    তারাবি প্রসঙ্গে মাওলানা ফয়জী বলেন,
    পবিত্র কোরআনের সঙ্গে রমজানের সম্পর্ক অচ্ছেদ্য। এ মাসে কোরআনের চর্চা হয়, তেলাওয়াত হয় এবং দেশের হাজার মসজিদে তারাবি নামাজে কোরআন খতম করা হয় । পবিত্র কুরআনের আলোকে জীবন গঠনের একটা প্রশিক্ষণ হয় মাহে রমজানে। তারাবীর নামাযে কুরআনুল কারীমের তিলাওয়াতের যেই পরিবেশ রমজান মাসে হয় তা অন্য সময় হয় না। করোনা ভাইরাসে লক ডাউনের কারণে মসজিদ বন্ধ থাকলে, নামাযে মুসল্লীর সংখ্যা সীমাবদ্ধ থাকলে রমজান উপলক্ষে ইবাদাত বন্দেগী সহ কুরআন তিলাওয়াতে কমতি হবে। ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যের সাথে মাহে রমজান অতিবাহিত করা যাবে না।

    তিনি আরো বলেন, হাট-বাজার সহ বিভিন্ন জায়গায় এখনো কমবেশি জনসমাগম হলেও মসজিদে নামাযের ব্যাপারে যতোসব কঠোরতা লক্ষ্য করা যাচ্ছে। প্রশাসন কর্তৃক মুসল্লীদের মসজিদ থেকে বের করে দেওয়া,ইমাম-খতীব হুমকিধামকি দেওয়া এবং মুসল্লী সীমাবদ্ধ করতে মসজিদ কমিটির উপর চাপ প্রয়োগের সংবাদ পাওয়া যাচ্ছে। এসব বড় দুঃখজনক বিষয়।

    কুরআন তিলাওয়াতের বরকতে আল্লাহ তায়া’লা করোনা ভাইরাস সহ যাবতীয় বালা-মুসিবত উঠিয়ে নিতে পারেন। তাই মসজিদ খুলে দিয়ে কুরআনের মাসে কুরআনের তিলাওয়াত হওয়ার পরিবেশ সৃষ্টি করুন।

    Facebook Comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২
    ১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
    ২০২১২২২৩২৪২৫২৬
    ২৭২৮২৯৩০৩১  
  • ফেসবুকে আওয়ারকণ্ঠ২৪.কম