• শিরোনাম


    মোসাদের কুটনীতির কাছে পরাজিত মুসলিম সামরাজ্য গুলো [] তাজউদ্দিন তারেক

    -- তাজউদ্দিন তারেক, সৌদি আরব প্রতিনিধি | ১২ সেপ্টেম্বর ২০২০ | ৯:১৬ পূর্বাহ্ণ

    মোসাদের কুটনীতির কাছে পরাজিত মুসলিম সামরাজ্য গুলো [] তাজউদ্দিন তারেক

    আলোচনায় এসেছে এই বছর শান্তিতে নোবেল পেতে মননীত হয়েছেন ট্রাম্প। তারই অংশ বিশেষ কি ট্রাম্পের এই ইসরাইল প্রীতি? ১৯৪৭ সালে ২৯ নবেম্বর জাতিসংঘের মাধ্যমে যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্যের নীল নকশা সেই দিন ইসরাইল বা ইহুদী রাষ্ট্রের গোড়াপত্তন হয় মূলত।

    আরবলিগের পর এক এক করে ইসরায়েল স্বীকৃতি।
    ধর্মত্বের দিক থেকে দেখা যায় মুনাফিকরাই ইসলামের ইতিহাসে বড় গাদ্দার ছিলো। ১৯৬৭ মধ্যপ্রাচ্যের যুদ্ধের মধ্যদিয়ে ফিলিস্তিন যে রাষ্ট্র সীমানা পেলো তার গুরুত্ব নেই মুসলিম রাষ্ট্র গুলোর কাছে। এইদিকে ইউএই বাহরাইন এর পথ অনুসরণ করে ইসরায়েল কে স্বাগত জানাতে অপেক্ষা করছে আরেক মুসলিম রাষ্ট্র (ইজিপ্ট) মিশর। অবশ্য প্যালেস্তাইনের পক্ষে ভোট পড়েছে সৌদি আরবীয়ার। এই স্বীকৃতির পর মধ্যপ্রাচ্যের ইসরায়েল নামক ইহুদি রাষ্ট্রটির শক্তি আরো বেড়ে গেলো। বলা হয়ে থাকে ইসরায়েল গোয়েন্দা সংস্থা মোসাদের শক্ত হাত রয়েছে সয়ং আমরিকার রাষ্ট্র ঘরে। যার ফলে খ্রিষ্টানধর্মাবলম্বীদের তৈরী হওয়া রাষ্ট্র ইসরায়েলের অবস্থানও কম নয়।

    এই স্বীকৃতির পর ট্রাম্পের ইহুদী জামাতা কুশনার দাবি করেছেন, ‘নতুন এক মধ্যপ্রাচ্যের শুরু আমরা দেখতে পাচ্ছি।’ এই থেকে বুঝা যায় তাদের স্বপ্ন আগামিতে মধ্যপ্রাচ্য সহ গোটা মুসলি বিশ্বকে নাড়াবে ইসরায়েল।



    অতিসম্প্রতি এই মাসের শুরু দিকে ফিলিস্তিনি বৃদ্ধের ওপর ইসরাইলি বর্বরতা: সমালোচনার ঝড় ছিলো অনলাইনে https://m.facebook.com/story.php?story_fbid=172655071034359&id=113304720302728

    পশ্চিম এশিয়ার গুরুত্বপূর্ণ অংশ প্যালেস্তাইন ঐতিহাসিকভাবে সারা পৃথিবীর কাছে পরিচিত। প্রাচীন সভ্যতার বিকাশে এই অঞ্চলের অবদান বেশ গুরুত্বপূর্ণ। সহস্রবছর ধরেই বিভিন্ন ধর্মের মানুষের এই অঞ্চলে বসবাস ছিল। তবে মূলত মুসলমান ও খ্রিস্টানদের বসবাসই ছিল বেশি। দ্বিতীয় বিশ্ব যুদ্ধের সময় কালে ১৯৩৩ সালে হিটলার যখন ক্ষমতায় এসে গণহত্যা চালায় ইহুদিদের উপর তখন আজকের প্যালেস্তাইনের মুসলমানরা তাদের আশ্রয় দিয়েছিলো থাকার জন্য। ভাবেননি যে পরে সেই ইহুদীরাই তাদের ঘর থেকে তাড়িয়ে দিবে। ধীরে ধীরে সেখানে ইহুদীদের বসবাস ক্রমেই বাড়তে থাকে। ১৯৪৮ সালে ইসরাইলে রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠার পর প্যালেস্তাইনীরা বুঝতে পরেন এই আশ্রীত ইহুদীর তাদের কতটা বিপদের কারন হয়ে দাড়াবে। আর ব্রিটিশ সাম্রাজ্যবাদী শক্তির উৎসাহে। যার ফলে পরে শুধু হয় প্যালেস্তাইন ও ইজরায়েল সঙ্কট যা গত সাত দশক ধরে চলে আসছে। এরই মধ্যে এককদম এগিয়ে বিতর্কিত এলাকা জেরুসালেমকে ইজরায়েলের রাজধানী বলে ঘোষণা করেছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রশাসন। যা নিয়ে শুধু আরব বিশ্ব কেন, ইউরোপ, এশিয়াতে ঝড় বয়ে গিয়েছে। আজকের তরুন প্রজন্মের ইজরায়েল-প্যালেস্তাইন সংঘাতের ইতিহাস না জানলে এর প্রেক্ষাপট বোঝা সম্ভব নয়।

    Facebook Comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১
    ১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
    ১৯২০২১২২২৩২৪২৫
    ২৬২৭২৮২৯৩০  
  • ফেসবুকে আওয়ারকণ্ঠ২৪.কম