• শিরোনাম


    মুসলিম উম্মাহর এই ক্লান্তি লগ্নে ঐক্যবদ্ধ হওয়া ছাড়া কোন উপায় নেই: মাওলানা নিজামপুরী

    হাবিব আনওয়ার, চট্টগ্রাম প্রতিনিধি | ০৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০ | ৯:২৫ অপরাহ্ণ

    মুসলিম উম্মাহর এই ক্লান্তি লগ্নে  ঐক্যবদ্ধ হওয়া ছাড়া কোন উপায় নেই: মাওলানা নিজামপুরী

    মুসলিম উম্মাহর এই ক্রান্তিলগ্নে আমাদের ঐক্যবদ্ধ হওয়া ছাড়া কোন উপায় নেই। আজ সারাবিশ্বে মুসলিম উম্মাহ নির্যাতিত-নিপীড়িত। ইহুদী খৃষ্টানসহ অন্যান্য ধর্মালম্বীরা আজ ঐক্যবদ্ধ হয়েছে মুসলমানদের নিঃশেষ করার লক্ষ্যে। তারা হিন্দু খৃষ্টান ঐক্য পরিষদ গঠন করেছে। আর আমরা তুচ্ছ বিষয় নিয়ে নিজেদের মধ্যে বিবেধ তৈরি করি। নিজেদের শত্রুকে আমরা আজ ভুলে গিয়ে সেই শত্রুদের তাবেদারিতে ব্যাস্ত হয়ে পড়েছি।

    গতকাল ৭ ফেব্রুয়ারি ফেনি দারুল উলূম কাসিমপুর মাদরাসা-মসজিদ কমপ্লেক্স এর উদ্যোগে আয়োজিত ইসলামি মহা সম্মেলনে প্রধান অতিথির আলোচনায় হাটহাজারী মাদরাসার মুহাদ্দিস ও হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় সাহিত্য বিষয়ক সম্পাদক মাওলানা আশরাফ আলী নিজামপুরী একথা বলেন।



    মাওলানা নিজামপুরী আরো বলেন, ইহুদী খৃষ্টানরা মুসলমানদের ঘরে ঘরে আজ তাদের কৃষ্টি কালচার ছড়িয়ে দিচ্ছে। বিজাতীয় সংস্কৃতির করাল গ্রাসে আমরাদের তরুণ প্রজন্ম দিশেহারা। আজ আমরা আমাদের আত্মপরিচয় সংকটে ভুগছি। আমরা আমাদের ইতিহাস ঐতিহ্য ভুলে গিয়েছি। যার ফলে ইহুদী খৃষ্টানরা আমদের উপর বিজাতীয় সংস্কৃতি খুব সহজেই চাপিয়ে দিচ্ছে।

    এসময় তিনি সকলকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে ওলামায়ে কেরামের ডাকে সাড়া দেওয়াসহ যেকোনো ত্যাগের জন্য প্রস্তুত থাকতে সকলের প্রতি আহবান জানান।

    একই দিনে রাত ১০ টায় ফেনী বারাহীপুর নূরীয়া মদিনাতুল উলূম মাদরাসার বার্ষিক মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মাওলানা আশরাফ আলী নিজামপুরী বলেন,

    বিশ্ব মানবতার মুক্তির দূত রাসুল সা. এর সুন্নাত মোতাবেক জীবন যাপন করতে হবে। রাসুলের সকল সুন্নাত আঁকড়িয়ে ধরতে হবে। কেননা সুন্নাতে রাসূল সা. মোতাবেক জীবন যাপনে রয়েছে উম্মাহর মঙ্গল ও সফলতা৷ সাথে সাথে সব ধরনের বেদআত,কুসংস্কার প্রত্যাখান ও পরিহার করতে হবে৷

    মাওলানা নিজামপুরী বলেন, সূর্যের আলোর ন্যায় স্পষ্ট কথা যে,হারামে যেমন আরাম নেই বিদআতেও হেদায়াত নেই। সুন্নাত হচ্ছে আলো আর বেদআত হচ্ছে অন্ধকার; গোমরাহী৷

    এহয়ায়ে সুন্নত ও এমাতাতে বিদআত অর্থাৎ সুন্নতকে জীবিত করা এবং বিদআতকে ধূলিসাৎ করার জন্য কওমী মাদরাসার প্রতিষ্ঠা। তাই কওমী মাদরাসা থেকে ফারেগ হওয়া সকল ওলামায়ে কেরামকে বিদআতীসহ সব বাতিলের মোকাবেলা করতে হবে।

    অবশেষে তিনি দেশ ও জাতির কল্যাণ কামানা করে বিশেষ মোনাজাত পরিচালনা করেন।

    Facebook Comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১
    ১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
    ১৯২০২১২২২৩২৪২৫
    ২৬২৭২৮২৯৩০  
  • ফেসবুকে আওয়ারকণ্ঠ২৪.কম