• শিরোনাম


    মুরগির বাচ্চার প্রাণ বাঁচাতে হাসপাতালে আসা সেই শিশুকে পুরস্কৃত করেছে তার স্কুল।

    | ০৫ এপ্রিল ২০১৯ | ১২:৪০ অপরাহ্ণ

    মুরগির বাচ্চার প্রাণ বাঁচাতে হাসপাতালে আসা সেই শিশুকে পুরস্কৃত করেছে তার স্কুল।

      প্রতিবেশীর মুরগির বাচ্চাকে সাইকেল চালাতে গিয়ে ধাক্কা দিয়ে ফেলেছিল। তাই দেরি না করে আহত মুরগির বাচ্চাটিকে নিয়ে হাসপাতালে পৌঁছে যায় মিজোরামের একটি শিশু। নিজের সঞ্চিত সব টাকার বিনিময়ে মুরগির প্রাণ বাঁচানোর আবেদনও জানায়।

      ওই শিশুর মানবিকতা দেখে চমকে গিয়েছিল সবাই। রাতারাতি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয় তার কাহিনি। ২৪ ঘণ্টা ঘুরতে না ঘুরতেই জানা গেল, মানবিকতার সেই স্বীকৃতিও পেয়েছে সে।
      মিজোরামের সাইরাংয়ের বাসিন্দা ডেরেক সি লালছানহিমাকে পুরস্কৃত করল তার স্কুল। তাকে দেওয়া হয়েছে একটি প্রশংসাপত্র। যাতে লেখা ‘ওয়ার্ড অফ অ্যাপ্রিশিয়েসন’। ওই প্রশংসাপত্র নিয়ে ডেরেকের ছবি গতকাল বৃহস্পতিবার আবারও ভাইরাল হয়েছে নেট দুনিয়ায়।



      সড়ক দুর্ঘটনা প্রায়ই ঘটে রাস্তাঘাটে। আমরা অনেকেই অযথা ঝামেলা এড়াতে দেখেও না দেখার ভান করে চলে যাই। এমনকী, যিনি ধাক্কা দিয়েছেন, সেই গাড়ি বা বাইক চালকও ভয়ে পালিয়ে যান।

      অমানবিকতার এই রকম হাজারো উদাহরণের মধ্যে ডেরেক বুধবার সকলের কাছে হাজির হয়েছিল শুদ্ধ বাতাসের মতো। তার শিশুমনের পবিত্রতা নিয়ে সকলেই প্রশংসা করেছিল। তার পুরস্কারও পেল সে।

      কিন্তু মুরগির বাচ্চাটিকে সে বাঁচাতে পারেনি। কারণ তার সাইকেলের চাকায় পিষ্ট হয়েই মুরগির ছানাটির প্রাণ যায়। তা সত্ত্বেও তার এই উদ্যোগ অবশ্যেই শিক্ষা দিল সকলকে।

      Facebook Comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২১৩১৪১৫
    ১৬১৭১৮১৯২০২১২২
    ২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
    ৩০৩১  
  • ফেসবুকে আওয়ারকণ্ঠ২৪.কম