• শিরোনাম


    মাহফিল বন্ধের ঘোষনায় সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন হচ্ছে: মুফতি আমজাদ হোসাইন আশরাফী

    | ২৪ নভেম্বর ২০১৮ | ৪:৪৮ পূর্বাহ্ণ

    মাহফিল বন্ধের ঘোষনায় সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন হচ্ছে: মুফতি আমজাদ হোসাইন আশরাফী

    নির্বাচন কমিশন কর্তৃক নির্বাচনের জন্য মাহফিল বন্ধের ঘোষনায় সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন হচ্ছে খুব বেশী। ঘোষনাটা যদি এমন হতো যে, মাহফিল চলবে কিন্তু মাহফিলে কোন প্রার্থী বা প্রার্থীর পক্ষে ভোট চায়তে পারবে না। তাহলে হয়তো কিছুটা হলেও যৌক্তিক হতো, সরকারের জন্যেও বেশ উপকার হতো।
    তাছাড়াও মাহফিলগুলোতে বক্তাগণ তো যোগ্য লোকের পক্ষেই জনমত তৈরী করার কথা বলে থাকেন।
    যেমন আমি প্রায় মাহফিলেই বলি “টাকা খেয়ে ভোট দেবেন না, দেশের দশের ক্ষতি হবে এমন লোককে ভোট দেবেন না, অযোগ্য লোক যদি নিজের দলেরও হয় তাকে ভোট দেবেন না। কারণ ভোট একটি আমানত, আমানতের খেয়ানতকারীর ঈমান বিনষ্ট হয়ে যায়”।
    এগুলো বলা যেখানে নির্বাচন কমিশনের দায়িত্ব ছিলো। সেখানে আমরা ওয়ায়েজীনগন নির্বাচন কমিশনের সহায়ক ভুমিকা পালন করছি। আমরা আমাদের বয়ানগুলোর মাধ্যমে অবাধ সুষ্ট নির্বাচন হওয়ার দাবী নিয়েই তো কথা বলি।
    সরকার বাহাদুরকে বলবো নির্বাচন কমিশনের এই জঘন্য নির্দেশে কিন্তু এদেশের ধর্মপ্রাণ মুসলমানদের মনে এখন নতুন করে শংকা তৈরী হয়েছে যে, নির্বাচনের জন্যেই যদি ধর্মীয় কাজে এমন বাঁধা দেওয়া হয়, তাহলে নির্বাচনের পর নির্বাচিত সরকারের কাছে ধর্ম কতটা নিরাপদ ?
    মানুষ ওয়ায়েজীন হযরতদের পেছনে বছরের পর বছর, মাসের পর মাস ঘুরে অনেক কষ্ট পেরেশানীর মধ্য দিয়ে একটি তারিখ নির্ধারণ করে থাকে। ইতোমধ্যে পোষ্টার ব্যানার করে কর্তৃপক্ষ বেশ টাকা পয়সাও খরছ করে রেখেছে।
    অতএব, মেহেরবানী করে ধর্মের বিরুদ্ধে কোন পদক্ষেপ নেবেন না, কারণ এদেশে ধর্মের বিরুদ্ধে গিয়ে কেউ টিকে থাকতে পারেনি, কেউ পারবেও না, ইন্শাআল্লাহ্।

    পরিশেষে নির্বাচন কমিশনের নিকট এমন জঘন্য সিদ্ধান্ত বাতিলের আহ্বান করছি। কারণ আপনার জন্য ভাবমূর্তি নষ্ট হচ্ছে সরকারের। এব্যাপারে মহামান্য রাষ্ট্রপতি এবং মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর পদক্ষেপ জরুরী বলে মনে করছি।



    Facebook Comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২১৩১৪১৫১৬
    ১৭১৮১৯২০২১২২২৩
    ২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
  • ফেসবুকে আওয়ারকণ্ঠ২৪.কম