• শিরোনাম


    লেখক: মুফতি ছালেহ বিন আব্দুল কুদ্দুস, অতিথি লেখক

    মাস্ক পরে নামাজ পড়া কি বৈধ নয়? : মুফতি ছালেহ বিন আব্দুল কুদ্দুস

    | ০৭ এপ্রিল ২০২০ | ৫:৪২ পূর্বাহ্ণ

    মাস্ক পরে নামাজ পড়া কি বৈধ নয়? : মুফতি ছালেহ বিন আব্দুল কুদ্দুস

    সম্প্রতি মাস্ক পরে নামায পড়া জায়েয নয় বলে মনগড়া ফতোয়া দিয়ে আহলে হাদিস আলেমদেরই বিরোধিতার গ্যারাকলে আটকে গেলেন বিতর্কিত শাইখ আব্দুর রাজ্জাক বিন ইউসুফ। তিনি বলেন, পৃথিবীর ৬০০কোটি মানুষের ৪০০কোটি মরে গেলেও মাস্ক পরে নামায পড়ার কোন বৈধতা নেই। কোন মায়ের বেটা এই ফতোয়াকে উল্টে দিতে পারবেনা।’’

    অথচ তা নিতান্তই ভুল ও সালাফবিরোধী কথা। নামাযে নাক-মুখ ও চেহারা ঢেকে রাখাকে মুহাদ্দিসীন এবং ফুকাহায়ে কেরামের কেউ জায়েয বলেছেন, তবে অধিকাংশই মাকরূহ বলেছেন; কিন্তু নাজায়েয কেউ বলেননি। আর মাকরূহের হুকুমও স্বাভাবিক সময়ে। অতি প্রয়োজনের সময় সেটাকে মাকরূহও বলা যাবেনা। নিম্নে আয়াত, হাদিস, শরহুল হাদিস ও ফিকহের কিতাবাদী থেকে কিছু দলীল উল্লেখ করা হলো:
    قال تعالى: {وما جعل عليكم في الدين من حرج} الحج: 78



    আল্লাহ তাআলা দ্বীনের ক্ষেত্রে কষ্টসাধ্য কোনকিছু তোমাদের উপর চাপিয়ে দেননি।(সূরা হজ্জ:৭৮)
    عَنْ أَنَسِ بْنِ مَالِكٍ رَضِيَ اللَّهُ عَنْهُ، قَالَ: «كُنَّا نُصَلِّي مَعَ النَّبِيِّ صَلَّى اللهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ فِي شِدَّةِ الحَرِّ، فَإِذَا لَمْ يَسْتَطِعْ أَحَدُنَا أَنْ يُمَكِّنَ وَجْهَهُ مِنَ الأَرْضِ بَسَطَ ثَوْبَهُ، فَسَجَدَ عَلَيْهِ
    হযরত আনাস বিন মালিক (রা.) থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, তীব্র গরমের মধ্যে আমরা রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের সঙ্গে নামায আদায় করতাম। আমাদের কেউ মাটিতে তার চেহারা (কপাল) স্থির রাখতে সক্ষম না হলে সে নিজ কাপড় বিছিয়ে তার উপর সিজদা করত। (সহীহ বুখারী, ১২০৮)

    জায়েয ও মাকরূহ হওয়া সংক্রান্ত ইমামগণের উভয় প্রকারের মতামত নিম্নরূপ:
    لا خلاف بين الفقهاء في كراهة التّلثم – وهو تغطية الأنف والفم – في الصّلاة
    قال ابن المنذر : كل من أحفظ عنه من أهل العلم يكره التّلثم وتغطية الفم في الصّلاة إلا الحسن , فإنّه كره التّلثم ورخّص في تغطية الفم
    وكره ابن عمر وسعيد والحسن البصري والأوزاعي ومالك وأحمد وإسحاق التّلثم في الصّلاة
    الكتاب : الموسوعة الفقهية الكويتية
    37/204

    ما أفتى به هنا من أنه يكره التلثم على الفم في الصلاة هو الصحيح من المذهب، وعليه الأصحاب، وقطع به كثير منهم.
    وروي عن أحمد: أنه لا يكره.
    والصحيح من المذهب: أنه يكره التلثم على الأنف في الصلاة. اختاره ابن قدامة والمجد بن تيمية، وجزم به في الوجيز والنظم والهادي وغيرهم.
    وروي عن أحمد: أنه لا يكره.
    المغني 1/585
    فيكره التلثم وتغطية الأنف والفم فى الصلاة، لأنه يشبه فعل المجوس (حاشية الطحطاوى على مراقى الفلاح-350-351

    এখন সমাধানে আসা যাক:
    শারেহে মুসলিম ইমাম নববী রহ. বলেন-أنها كراهة تنزيهيه لا تمنع صحة الصلاة মাকরূহ হলেও নামায সহীহ হয়ে যাবে। -(আল-মাজমু’ শরহুল মুহাযযাব )

    তদুপরী ইসলামী ফিকহের অন্যতম বিধিবদ্ধ মূলনীতি এই যে, একান্ত ঠেকাবশত প্রয়োজন দেখা দিলে সার্বিক দিক বিবেচনা করে মুফতিয়ানে কেরাম কোন নিষিদ্ধ বিষয়ের ক্ষেত্রে বৈধতার ফতোয়া জারী করতে পারেন।
    যেমনটা ‘‘فيض القدير’’ নামক কিতাবে আছে,
    الضرورات تبيح المحظورات
    অর্থাৎ জরুরত নিষিদ্ধ বিষয়ে বৈধতা এনে দেয়।।
    1 / 138

    ‘‘ دليل الفالحين’’ গ্রন্থে উল্লেখিত আছে,
    وإذا ضاق الأمر اتسع
    অর্থাৎ কোন বিষয় সংকীর্ণ হয়ে গেলে তাতে প্রশস্তি চলে আসে।।
    6/ 63
    ……………………………………………………………………..
    বিস্তারিত জানতে দেখুন:
    فقه العبادات 91/1
    الإنصاف 1/470
    الخلاصة في فقه الأقليات9/29
    الفِقْهُ الإسلاميُّ وأدلَّتُهُ 1/84
    خلاصة الأصول1/27
    شرح مختصر خليل للخرشي 3/224
    লেখক: মুফতি ছালেহ বিন আব্দুল কুদ্দুস
    প্রাবন্ধিক ও অনুবাদক: শাহবাজপুর, বি-বাড়িয়া, বাংলাদেশ।
    ৭/৪/২০২০ইং, মঙ্গলবার।।

    Facebook Comments Box

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    নিয়ত অনুসারে নিয়তি ও পরিনতি

    ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০
    ১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
    ১৮১৯২০২১২২২৩২৪
    ২৫২৬২৭২৮২৯৩০  
  • ফেসবুকে আওয়ারকণ্ঠ২৪.কম