• শিরোনাম


    ভোলায় তাওহিদী জনতার উপর হামলা ও হত্যার প্রতিবাদে কাতারে প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত

    রিপোর্ট : কে. এম. সুহেল আহমদ, কাতার প্রতিনিধি | ২৭ অক্টোবর ২০১৯ | ৩:১৭ অপরাহ্ণ

    ভোলায় তাওহিদী জনতার উপর হামলা ও হত্যার প্রতিবাদে কাতারে প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত

    কাতারে মাজলিসুল উলামার প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।
    শায়েখ নুরুল হকের আহ্বানে ভোলায় নবী (সাঃ) এর কটুক্তিকারীর প্রতিবাদী তাওহিদী জনতার উপর হামলা ও হত্যার প্রতিবাদেই এ সমাবেশ।
    ২৫ অক্টোবর (শুক্রবার) বাদ এ’শা মাজলিসুল উলামা কাতার’র সভাপতি মাওলানা
    নুরুল হকের সভাপতিত্বে রাজধানী দোহার ফানার মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত সমাবেশে আলোচকবৃন্দের মধ্য থেকে বক্তব্য রাখেন ‘মাজলিসে ইত্তেহাদুল মুসলিমীন দোহা- কাতার’র’ সভাপতি
    মাওলানা ফরিদ আহমাদ ফরিদী, মারকাজ দাওয়াতুল হকের সেক্রেটারী মাওলানা ওবাইদুল্লাহ, কাতার ধর্মমন্ত্রণালয়ের ইমাম ও খতিব মাওলানা এমদাদুল্লাহ ও মাওলানা ফখরুল হুদা,
    মাজলিসে ইত্তেহাদুল মুসলিমীনের সেক্রেটারী ও মাজলিসুল উলামা কাতার’র সদস্য সচিব মাওলানা মুশাহিদুর রাহমান, সহ সভাপতি মাওলানা সিরাজুল ইসলাম, ইসলামী আন্দোলন কাতার’র সভাপতি মাওলানা নুরুল আনোয়ার, কাতার বিএনপি’র সেক্রেটারী শরীফ আহমাদ সাজু,বাংলাদেশ লেখক- সাংবাদিক অ্যাসোসিয়েশন কাতার’র সভাপতি অধ্যাপক একেএম আমিনুল হক, পরিচালক
    মাওলানা আবদুল বারি সাহেব (ইমাম ও খতীব কাতার ধর্মমন্ত্রণালয়)।
    এছাড়া অনুষ্ঠানে বিভিন্ন রাজনৈতিক অঙ্গ সংগঠন ও কমিউনিটি নেতৃবৃন্দ, ইলেকট্রনিক্স প্রিন্ট ও অনলাইন পত্রিকার সাংবাদিকবৃন্দ সহ প্রবাসী ধর্মপ্রাণ মুসল্লীগণ উপস্থিত ছিলেন।
    উল্লেখ্য যে, প্রতিবাদ সমাবেশে আলোচকবৃন্দের বক্তব্যে মাজলিসুল উলামার যেসব দাবী গুলো তুলে ধরা হয় তা হল,
    ১. ঘটনার সুষ্ঠ তদন্তের মাধ্যমে মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.) ও আল্লাহকে নিয়ে কটূক্তিকারী হিন্দু ধর্মাবলম্বী বিপ্লব চন্দ্র শুভ’র সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিত করতে হবে।
    ২. পুলিশের গুলিতে নিহত শহীদদের ক্ষতিপূরণ দিতে হবে।
    ৩. পুলিশের গুলিতে আহতদের সুচিকিৎসা নিশ্চিত করতে হবে।
    ৪. নির্বিচারে গুলি বর্ষণকারী অভিযুক্ত পুলিশ সদস্যদের বিরুদ্ধে যথাযথ আইনানুগ ব্যবস্থা নিতে হবে।
    ৫. গ্রেপ্তার তৌহিদী জনতার সদস্যদের নিঃশর্ত মুক্তি ও মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার করতে হবে।
    ৬. আমাদের দেশ একটি শান্তিপূর্ণ দেশ। সে দেশে কোনো অশুভ তৎপরতা দেশের শান্তিকামী তৌহিদী জনতা মেনে নিবে না। উগ্র হিন্দুত্ববাদী, সংগঠন “ইসকন” সাম্প্রদায়িক বিভেদ সৃষ্টি করতে চায়।এই দেশে ইসকনের সকল কার্যক্রম বন্ধ করতে হবে।
    পরিশেষে, সকল মুসলিম উম্মাহ’র শান্তি কামনার্থে বিশেষ মোনাজাতের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি হয়।

    Facebook Comments Box



    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
    ১০১১১২১৩১৪
    ১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
    ২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
    ২৯৩০৩১  
  • ফেসবুকে আওয়ারকণ্ঠ২৪.কম