• শিরোনাম


    ভাষার জন্য জীবন দেওয়া একমাত্র জাতি ‘বাঙ্গালী’ -ম. কাজী এনাম

    লেখক: ম. কাজী এনাম, স্টাফ রিপোর্টার | ২০ ফেব্রুয়ারি ২০২০ | ১১:২৪ অপরাহ্ণ

    ভাষার জন্য জীবন দেওয়া একমাত্র জাতি ‘বাঙ্গালী’  -ম. কাজী এনাম

    উইকিপিডিয়ার ভাষ্যমতে, ‘একুশে ফেব্রুয়ারি বাংলাদেশের জনগণের গৌরবোজ্জ্বল একটি দিন। এটি শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসাবেও সুপরিচিত। বাঙ্গালী জনগণের ভাষা আন্দোলনের মর্মন্তুদ ও গৌরবোজ্জ্বল স্মৃতিবিজড়িত একটি দিন হিসেবে চিহ্নিত হয়ে আছে। ১৯৫২ সালের এই দিনে (৮ ফাল্গুন, ১৩৫৮) বাংলাকে পূর্ব পাকিস্তানিদের অন্যতম রাষ্ট্রভাষা করার দাবিতে আন্দোলনরত ছাত্রদের ওপর পুলিশের গুলিবর্ষণে কয়েকজন তরুণ শহীদ হন। তাদের মধ্যে অন্যতম হলো রফিক,জব্বার,শফিউল,সালাম,বরকত সহ অনেকেই। তাই এ দিনটি শহীদ দিবস হিসেবে চিহ্নিত হয়ে আছে। ২০১০ খ্রিষ্টাব্দে জাতিসংঘ কর্তৃক গৃহীত সিদ্ধান্ত মোতাবেক প্রতিবছর একুশে ফেব্রুয়ারি বিশ্বব্যাপী আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন করা হয়।’

    ‘একুশ মানে চিরন্তনী এক বিরল জাতি,
    যাহারাই কেবল পৃথিবীতে
    ভাষার জন্য রচিয়াছে প্রোজ্জ্বলিত বাতি।’



    মানুষ স্বাধীনতার জন্য যুদ্ধ করে, দেশ জয়ের নেশায় যুদ্ধ করে, অর্থ-আভিজাত্য ও ক্ষমতায়নের জন্য যুদ্ধ করে, ধর্মের জন্য যুদ্ধ করে। অনেক ক্ষেত্রে নিজেদের অস্তিত্ব রক্ষার জন্যেও যুদ্ধ করে। কিন্তু স্রিফ মায়ের ভাষায় কথা বলার জন্য যুদ্ধ কিংবা প্রাণ দেওয়ার ঘটনা শুনা যায়না। এটা কেবল বাঙ্গালীদের দ্বারাই সম্ভব। বাঙ্গালীদের মতো আবেগ-অনুরাগ, প্রেম-ভালবাসা, মায়া-মমতা এবং দুঃসাহসিকতা পৃথিবীতে আর দ্বিতীয়টি আছে কিনা জানা নেই। এরা মরতে মরতে লড়তে জানে। এরা হারতে হারতে জিততে জানে।

    একটা মানুষ কতটা ভালবাসলে মায়ের মুখের মিষ্টি ভাষার জন্যে নিজের জীবন বাজি রাখতে পারে, কিংবা নিজের জীবনের সবটুকো সুখ বিসর্জন দিতে পারে, সেটা বলার অপেক্ষা রাখেনা। এটা এমন এক ভালবাসা যার অস্তিত্ব পৃথিবীতে আর দ্বিতীয়টি পাওয়া যায়না। একটা ভাষার জন্য এই জাতি রাজপথে বুকের তাজা রক্তেরচাপ দিয়ে প্রমান করে দিয়েছে যে, এ জাতি অনন্য। এই জাতি বাকি অন্য যে কোন জাতি থেকে ভিন্নতর। এদের চিন্তা-চেতনায় স্বদেশ এবং স্বজাতীয় স্প্রিহা বারুদের গন্ধের চেয়েও ঢের নির্মোহ বিরাজ করে। রক্তচক্ষু কিংবা বুলেটের আওয়াজ নিজেদের ভাষা থেকে একচুলও নড়াতে পারেনি যে জাতির, তারা হলো বাঙ্গালী। নিজেকে বাঙ্গালীদের একজন ভাবতে গর্ববোধ হয়। এই ভাষায় কথা বলতে পারছি বলে, নিজেকে সৌভাগ্যবান মনে হয়। মনে হয়, এই ভাষাটায় আমাদের রক্তেরচাপ আজও দৃশ্যমান। তাইতো বলি-

    ‘বাঙ্গালী আমি বাংলায়,
    মাতৃক্রোড়ের গন্ধ পায়।
    বাঙ্গালী আমি বাংলায়,
    কথাবলি এ মাটির মমতায়।’

    যাঁদের আত্মত্যাগ ও রক্তের বিনিময়ে আজকে আমরা স্বাধীন ভাবে মাতৃভাষায় কথাবলা, সাহিত্য রচনা, কবিতা-পত্র লেখা, অথবা বক্তৃতার মঞ্চে নিজের অনুভূতি প্রকাশ করতে পারছি, সেই সকল শহীদদের প্রতি অফুরন্ত ভালবাসা ও প্রার্থনা করি। সেই সাথে তাদের প্রতি জানাই গভীর শ্রদ্ধাঞ্জলি। তাদের আত্মাকে মহান বিশ্বস্রষ্টা শান্তিময় করুক। আমিন

    -লেখক, কবি-সাহিত্যিক, শিক্ষক ও সাংবাদিক।

    Facebook Comments Box

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
    ১০১১১২১৩১৪
    ১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
    ২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
    ২৯৩০৩১  
  • ফেসবুকে আওয়ারকণ্ঠ২৪.কম