• শিরোনাম


    বিতর্কিত সংগঠন ইসকনের জায়গা হলেও ইসলামী অসংখ্য প্রকাশনার জায়গা মিলেনি বইমেলায়

    লেখক : ম. কাজী এনাম, স্টাফ রিপোর্টার | ০৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০ | ৭:২৭ অপরাহ্ণ

    বিতর্কিত সংগঠন ইসকনের জায়গা হলেও ইসলামী  অসংখ্য প্রকাশনার জায়গা মিলেনি বইমেলায়

    রকমারির ডাটা মতে, বাংলাদেশে সবচেয়ে বেশি বিক্রিত প্রকাশনির তালিকায় “সমকালীন” প্রকাশন দুই নাম্বারে অবস্থান করছে। তারপরেও সেই সমকালীন প্রকাশনি ঢাকা একুশে বই মেলায় কোন স্টল পায় না। কারণ হিসাবে দেখানো হয় এই প্রকাশনি থেকে ইসলামী বই গুলো বের হয়। যা মুসলিম প্রধান দেশের জন্য একটা হাস্যকর ঘটনা।

    আচ্ছা একুশে বই মেলাকে অসাম্প্রদায়িক রাখতে চান তাই সমকালীন প্রকাশনীর স্টলের অনুমতি দিচ্ছে না।সেই একই মেলায় কিভাবে বিতর্কিত “ইসকন” তাদের স্টল করবার অনুমতি পায়? ভাবনার বিষয়, এদেশের সাহিত্যপ্রেমী মুসলিমদের কোথাই নিয়ে যাওয়া হচ্ছে?



    ব্যাপক জন-দাবি সত্ত্বেও বইমেলায় স্টল বরাদ্দ অঘোষিতভাবে ইসলামী প্রকাশকদের জন্য নিষিদ্ধ করে রাখা হলেও মুসলিমবিদ্বেষী আগ্রাসী সাম্প্রদায়িক সংগঠন ‘ইসকন’কে বাংলা একাডেমি স্টল বরাদ্দ দিতে কোনরূপ সাম্পদ্রায়িকতা দেখতে পায়নি।

    উগ্র হিন্দুত্ববাদ বাংলাদেশ রাষ্ট্রের গুরুত্বপূর্ণ জায়গাসমূহে প্রশাসনের প্রচ্ছন্ন সুদৃষ্টি নিয়ে যেমন দ্রুত জায়গা করে নিচ্ছে, অন্যদিকে মৌলবাদ, সাম্প্রদায়িকতা ও ধর্মীয় গোঁড়ামির অপবাদি দিয়ে চতুরতার সাথে ইসলামী শিক্ষা, সংস্কৃতি ও চেতনাবোধকে উৎখাতের আগ্রাসী চেষ্টা চলছে।

    যুগ যুগ ধরে শত শত দেশিয় ইসলামী প্রকাশকদের জন্য পথ রুদ্ধ রেখে আগ্রাসী হিন্দুত্ববাদি বিদেশি সংগঠন ‘ইসকন’কে মেলায় স্টল বরাদ্দ, এর সর্বশেষ প্রমাণ। এটা যেমন দেশের ৯০ ভাগ জনগোষ্ঠির আদর্শিক বিশ্বাস ও চেতনাবোধকে দাবিয়ে রাখা ও অপমান করার চেষ্টা, তেমনি ভারতে অব্যাহত মুসলিমবিদ্বেষি ঘৃণা ছড়ানো এবং এনআরসি ও নাগরিকত্ব আইন প্রণয়ন যেই ইসকনের ফসল, তাদেরকে পুরষ্কৃত করার শামিল।

    বাংলা একাডেমি জনগণের করের পয়সায় চলে। বিদেশি হিন্দুত্ববাদি কোন সংগঠনকে এগিয়ে চলতে জায়গা করে দেওয়ার জন্য বাংলাদেশের মানুষ তাদেরকে করের টাকা খরচের অনুমোদন দেয় না। ‘ইসকন’কে স্টল বরাদ্দ দেওয়ার আমরা তীব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা জানাই। আমরা অবিলম্বে এই বরাদ্দ বাতিলের দাবি জানাই। দেশে বিদ্যমান সুন্দর সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি এবং বহু মতের মানুষের সামাজিক সহাবস্থান অটূট রাখার জন্য এটা জরুরি।

    অনলাইন-অফলাইনে প্রচুর সমালোচনা দেখা গেলেও এই বিষয় নিরবতার ভূমিকা পালন করছে এদেশের মিডিয়াপাড়া। একটা মুসলিম প্রধান দেশের জন্য ইহা একটি ঘৃণ্যতম কাজ ছাড়া বৈ কিছু নয়।

    Facebook Comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১
    ১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
    ১৯২০২১২২২৩২৪২৫
    ২৬২৭২৮২৯৩০  
  • ফেসবুকে আওয়ারকণ্ঠ২৪.কম