• শিরোনাম


    বাবরি মসজিদের স্থলে রামমন্দির নির্মাণের ঘোষণা উস্কনিমূলক: আবদুল লতিফ নেজামী।।

    গাজী আশরাফ আজহার, নিজস্ব প্রতিবেদক: আওয়ার কণ্ঠ | ০১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ | ৫:০৩ অপরাহ্ণ

    বাবরি মসজিদের স্থলে রামমন্দির  নির্মাণের ঘোষণা উস্কনিমূলক:  আবদুল লতিফ নেজামী।।

    ভারতের উত্তর প্রদেশের অযোধ্যায় বাবরি মসজিদের স্থলে রামমন্দির নির্মাণের ঘোষণা দিয়েছে হিন্দু ধর্মঘুরু স্বামী স্বরূপানন্দ সরস্বতী । আগামী ২১ ফেব্রুয়ারী এই মন্দিরের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপনের তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে বলে এনডিটিভি প্রচারিত খবরের বরাতে পত্রিকান্তরে প্রকাশিত খবরে জানা যায়। রামমন্দির নির্মাণের ঘোষণাকে সমর্থন করেছেন লোকসভার স্পিকার সুমিত্রা মহাজন। তিনি নিজেকে রাম ভক্ত বলে উল্লেখ করেন। ”বাবরী মসজিদের ওপরই রাম মন্দির গড়া উচিৎ” বলে এর আগে বক্তব্য দেন ভারতের উত্তর প্রদেশের রাজ্যপাল রাম নায়েক।
    উল্লেখ্য, ১৯৯২ সালের ৬ নভেম্বর হিন্দু কট্ররপন্থীরা ১৬ শতকের অর্থ্যাৎ চার’শ বছরের পুরনো বাবরী মসজিদ ভেঙ্গে ফেলে। এতে ভারতে সৃষ্ট দাঙ্গায় দু”সহস্রাধিক লোকের প্রাণহাণী ঘটে। বাবরী মসজিদ ভাঙ্গার পর তাৎক্ষণিক ঘোষণায় ভারতের তৎকালীণ প্রধানমন্ত্রী নরসিমা রাও বাবরী মসজিদ পুনঃনির্মাণের ঘোষণা দেন।
    ঐতিহাসিক বাবরী মসজিদ কারা ধ্বংস করেছে, বিচারপতি লিবারহান কমিশনের রিপার্টে তা বলা হয়েছে। শুধু বাবরী মসজিদ নয়, বরং মথুরার ঈদগাহ, বারানসির গয়াবানী মসজিদসহ পূর্ব পাঞ্জাব ও হরিয়ানা প্রদেশের প্রায় দেড় হাজার, কোলকাতায় ৫০টি ও রাজধানী দিল্লীর ৯৪টি মসজিদ বেদখল হযে গেছে । তাছাড়া ভরত সরকারের পুরাতত্ত্ব বিভাগ সংরক্ষনের নামে তালিকাভুক্তির কারণে আরো এক শ’ মসজিদ মুসলমানদের হাতছাড়া হয়ে গেছে বলে কলকাতা থেকে প্রকাশিত একটি বই থেকে জানান যায়।
    কাল্পনিক চরিত্র রামের স্বীকৃতি একটি মিথ্যাকে প্রতিষ্ঠিত করার প্রয়াস বৈ আর কিছুই নয়। কেননা নিরপেক্ষ ও সূক্ষ্ম সমালোচক, প্রতিভাদীপ্ত ঐতিহাসিকগণ এবং বরেণ্য হিন্দু প-িতগণ রামকে একটি কাল্পনিক চরিত্র হিসেবে আখ্যায়িত করেছেন এবং রামায়ণ, মহাভারত ও পুরাণকে ইতিহাস হিসেবে স্বীকার করেননি। তাঁদের মতে রামায়ণ, মহাভারত ও পুরাণ কাব্যের বই, ইতিবৃত্ত নয়। প্রখ্যাত ঐতিহাসিক সুরেন্দ্রনাথ সেন এম,পি,এইচ,ডি,আরএস,ডিলিট-এর মতে রাম ও যুধিষ্ঠির নামে কোনো রাজা ছিলনা। তাছাড়া আন্তর্জাতিকভাবে পরিচিত পন্ডিত স্বামী বিবেকানন্দ বলেছেন, ”স্মৃতি পুরাণাদি সামান্য বুদ্ধিসম্পন্ন মানুষের রচনা, ভ্রম, প্রমাদ, ভেদবুদ্ধি ও দ্বেষবুদ্ধিতে পরিপূর্ণ।
    হিন্দু ধর্মঘুরু স্বামী স্বরূপা নন্দ সরস্বতী কর্তৃক বাবরী মসজিদ নির্মাণ কাজের ঘোষণা, লোকসভার স্পিকার সুমিত্রা মহাজন ও উত্তর প্রদেশের রাজ্যপাল-এর বক্তব্যে আদালতের আদেশের অবমাননা হতে পারে। রামমন্দিরের স্থলে বাবরী মসজিদ নির্মাণ করা হয়েছিল বলে যে দাবি করা হয়ে থাকে তা এখনও প্রমাণীত হয়নি।
    চরম হিন্দুত্ববাদী বিজেপি নেতারা উদ্ভট বক্তব্য দিয়ে আগামী নির্বাচনে হিন্দুদের ভোট পাওয়ার কূট কৌশলে প্রবৃত্ত হয়েছেন বলে মনে হয়। তাছাড়া যখনই ভারতে রাজনৈতিক সংকট তীব্র আকার ধারণ করে, তখনই দিল্লীর ব্রাহ্মণ্যবাদী সরকার অভ্যন্তরীণ সংকট থেকে পরিত্রাণ পাওয়ার জন্যে আন্তঃধর্মীয় লোকদের সংঘর্ষ বাঁধিয়ে সংকটের বহ্নিশিখা চাই চাপা দেয়ার অপচেস্টা চালায়।
    ভারতের সংখ্যালঘূ মুসলমানরা সেদেশের সংখ্যাঘুরু হিন্দুদের সাথে বন্ধুত্ব, মৈত্রী এবং সহযোগিতা সুদৃঢ় ও চিরস্থায়ীকরনের নীতিতে বিশ্বাসী হলেও হিন্দুরা সংখ্যাগরিষ্ঠতা ও গায়ের জোরে পারস্পরিক সহাবস্থানের নীতি বিসর্জন দিয়ে প্রতিবেশি মুসলমানদের সাথে বৈরী আচরণ অব্যাহত রাখার নীতিতে অটল। মুসলমানদের ওপর হিন্দুদের আগ্রাসী থাবা আজ অত্যন্ত প্রকট। মুসলমানদের ধর্মীয় ও মানবাধিকার পদানত করার লক্ষ্যে ক্রুর প্রয়াস চালানো হচ্ছে। গত ছয় দশকেরও বেশি সময়ের মধ্যে একটি দিনও সৎপ্রতিবেশিসূলভ সম্পর্ক সৃষ্টির আবহ রচনার সুযোগ দেয়া হয়নি।

    Facebook Comments



    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২১৩
    ১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
    ২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
    ২৮২৯৩০  
  • ফেসবুকে আওয়ারকণ্ঠ২৪.কম