• শিরোনাম


    বান্দরবন ভ্রমণ: কিছু স্মৃতি কিছু কথা [] আশিকুর রহমান গৌরনগরী

    | ০৮ নভেম্বর ২০২১ | ৭:৩৩ পূর্বাহ্ণ

    বান্দরবন ভ্রমণ: কিছু স্মৃতি কিছু কথা []  আশিকুর রহমান গৌরনগরী

    ভ্রমণ করতে কেই বা না চাই!
    আমি আদ্যোপান্ত একজন ভ্রমণপিপাসু ৷
    ভ্রমণ আর ট্যুরের কথা আমার কার্ণকোহরে পৌঁছতেই ,হৃদয় জুড়ে অস্থিরতা সৃষ্টি হয়ে যায় ভ্রমণের জন্য!
    আমরা কোনো এক আধাঁর রাতে বাসে করে বান্দরবনের পথে রওয়ানা দিলাম!
    বাস সাঁই সাঁই করে শহর,উপশহর,জেলা পাড়ি দিতে লাগলো খুব দ্রুত বেঁগে ৷
    দীর্ঘ রাত চলতে চলতে ভোরের আবছা আলোতে পাহাড়ের চূড়ায় কোনো এক চেকপোষ্ট আমাদের বাস থমকে দাঁড়ালো ৷
    সারা রাত বাসে ভ্রমণের কারনে ক্লান্তিতে শরীর নেতিয়ে গেছিল ৷
    চোখে আদু আদু ঘুম ৷ ক্লান্তিময় চোখ আচমকা খুলে গেলো বাস থামানো অনুভব করে ৷
    পরে জানা গেলো এই চেকপোষ্টের পরে পাহাড়ের উপর দিয়ে নিরব,নির্জন আঁকা বাঁকা পাহাড়ী রাস্তা৷
    ভোরের আলো ছাড়া এই পথ দিয়ে চলাচল তেমন নিরাপদ নয় ৷
    পাহাড়ী ডাকাতের আশঙ্কা থাকে ৷
    তাই ঐপাহাড়ের চেকপোষ্টে ভোর হওয়ার প্রতিক্ষায় সবাই বসে আছি!
    অবশেষে রাতের আধাঁর ভেঁদ করে উদ্ভাসিত হলো দিনের আলো ৷

    চার পাশ কোয়াশাচ্ছ্বন্ন,পাহাড়ের গাছের পাতায় পাতায় শিশির বিন্দু ৷ চার পাশ নিরব,নিস্তব্ধ ৷ যেন কবরের নিরবতা!
    যেন মনে হচ্ছে আমাজন জঙ্গলের মাঝে দাঁড়িয়ে আছি!
    পৃথিবী আধাঁরের নিরবতা ভেঙ্গে ভোরের আলো দিয়ে প্রস্ফুটিতে করে তুলেছে প্রকৃতিময়কে ৷
    রাতের আধাঁর কেঁটে গেলো,চোখে পড়তে লাগলো চারপাশের পাহাড়ী গাছ আর উঁচু উঁচু পাহাড়!
    তারপর -আবারও আমাদের গাড়ী চলতে লাগলো তার গন্তব্যের দিকে ৷
    পাহাড়ের আঁকা -বাঁকা রাস্তা ৷ কখনো উঁচু,আবার কখনো নিচুতে গাড়ী চলে যাচ্ছে!
    দূর সিমান্তে কিছু পাহাড়ের চূড়াতে দেখা যায়,যেন শিশির বিন্দুর রাজ্য, আবার মনে হয় যেন বরফে ঢাকা কুয়াশার স্তুপ!
    ঘুলাটে হয়ে আছে আকাশময় ৷
    গাড়ী চলছে দুর্দান্ত ভাবে তার গন্তব্যের দিকে ৷
    কিছুক্ষণ পর দু ‘পাহাড়ের মাঝ খান দিয়ে উকি দিচ্ছে প্রভাতের সূর্য ৷
    সোনালী রোদ লেপ্টে যাচ্ছে গাড়ীর জানালার গ্লাস ভেদ করে সবার চোখে,মুখে ৷
    সকালের কঁচি রোদ চারপাশ কে করে তুলেছে আলোকময় আর পাহাড়ের চূড়ায় গাছের পাতায় পাতায় শিশির বিন্দুকে করে তুলেছে চিকঁচিকঁময় ৷



    প্রভাতে পাহাড়ী প্রকৃতি আমাদের চোখকে করেছে মুগ্ধময়, আর আকাশচুম্বি মাথা উচু করে হাজার বছর দাঁড়িয়ে থাকা পাহাড় আমাদের ভিতরের ঈমানী পাওয়ার কে করেছে শক্তিশালী ৷
    আল্লাহ এই কুদরতী সৃষ্টি
    স্রষ্টার এই অপূর্ব সৃষ্টি দেখে ভিতর থেকে বের হচ্ছে “আল্লাহু আকবার ”
    এই সুন্দর প্রকৃতি দেখতে দেখতে আমরা চলছি বান্দরবন গন্তব্যের দিকে!

    অবশেষে আমাদের বাস আলীকদম বাস স্টেশনে পৌঁছল!
    ঐখানে চির্ণশীর্ণ একটি রেস্তুরাতে সকালের নাস্তা শেষ করলাম আমরা সবাই ৷
    তারপর -পাহাড়ী অঞ্চলের বিখ্যাত গাড়ী এবং প্রাচীন সিনামার ভিলেনদের গাড়ী,চান্দের গাড়ীতে আমরা সবাই উঠলাম ৷
    এই শক্তিশালী এবং মজবুত গাড়ী দুর্দান্ত ও খুব গতীতে চললো আমাদের পর্যটক স্পটের দিকে ৷

    চলবে ………!

    Facebook Comments Box

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০
    ১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
    ১৮১৯২০২১২২২৩২৪
    ২৫২৬২৭২৮২৯৩০৩১
  • ফেসবুকে আওয়ারকণ্ঠ২৪.কম