• শিরোনাম


    বাংলাদেশে মহানবী (সা.)-এর ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শনকারী ফ্রান্সের দূতাবাস দেখতে চাই না -মাও. হাসানাত আমিনী

    মুফতি মুহাম্মদ এনামুল হাসান, প্রতিনিধি | ২৫ অক্টোবর ২০২০ | ২:২৭ অপরাহ্ণ

    বাংলাদেশে মহানবী (সা.)-এর ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শনকারী ফ্রান্সের দূতাবাস দেখতে চাই না -মাও. হাসানাত আমিনী

    ফ্রান্সের সরকারী বহুতল ভবনে প্রজেক্টরের মাধ্যমে মহানবী হযরত মুহাম্মদ (স.)-এর ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শনের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন ইসলামী ঐক্যজোটের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান মাওলানা আবুল হাসানাত আমিনী। আজ (২৪ অক্টোবর) শনিবার গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, বাকস্বাধীনতার নামে ফ্রান্স ইসলাম বিরোধী চরম অসভ্য ও নোংরা খেলা শুরু করেছে। খোলা রাস্তায় সরকারী বহুতল ভবনে মুহাম্মদ (সা.)-এর ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শন করা হচ্ছে। আর সেখানে অস্ত্র হাতে পাহারা দিচ্ছে ফ্রান্সের পুলিশ তথা সরকার। ফ্রান্সের প্রধানমন্ত্রীও কিছুদিন আগে ইসলাম ধর্ম নিয়ে অবমাননাকর বক্তব্য দিয়েছেন। এসব উগ্র কর্মকান্ড প্রমাণ করে যে, ফ্রান্স সরকার ইসলাম ও মুসলমানদের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করেছে। ফ্রান্স সরকারের বিরুদ্ধে অবস্থান নেয়া বিশ্বের মুসলমানদের নৈতিক ও ঈমানি দায়িত্ব।

    তিনি বাংলাদেশ সরকারকে কড়া হুশিয়ারি দিয়ে বলেন, বাকস্বাধীনতার নামে প্রাণপ্রিয় নবী হযরত মুহাম্মদ (সা.)কে নিয়ে কোন ধরনের ব্যঙ্গ-বিদ্রুপ বরদাশত করা হবে না। অবিলম্বে সরকারীভাবে ফ্রান্সের এই ঘটনার কড়া প্রতিবাদ জানান। সংখ্যাগরিষ্ঠ মুসলমানের বাংলাদেশে আমরা ইসলামবিদ্বেষী ফ্রান্সের দূতাবাস দেখতে চাই না। দ্রুত ঢাকা থেকে ফ্রান্সের রাষ্ট্রদূতকে বহিস্কার ও দূতাবাস বন্ধ করে ওই দেশের সাথে সব ধরনের কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন করুন। অন্যথায় ইসলামী ঐক্যজোট ফ্রান্স দূতাবাস অভিমুখে বৃহত্তর লংমার্চ কর্মসূচী ঘোষণা করবে।



    বিবৃতিতে হাসানাত আমিনী বলেন, ইসলাম শান্তির ধর্ম। তবে কেউ ইসলামের নবী (সা.)-এর সম্মানে আঘাত হানলে তার প্রতিবাদ করা ঈমানি দায়িত্ব। এই প্রতিবাদকে যারা জঙ্গীবাদ বলে আখ্যায়িত করে তারাই প্রকৃত জঙ্গী ও সন্ত্রাসী। তিনি বলেন, আজকে বিশ্বব্যাপী অবস্থা এমন পর্যায়ে দাঁড়িয়েছে যে, মুসলমানদের নবীকে গালি দেয়া হচ্ছে, মুসলমানের উপর হামলা হচ্ছে, মুসলিম দেশ দখল করে মুসলমানদের বিতারিত করা হচ্ছে। অথচ মুসলমান প্রতিবাদ করলেই তাকে জঙ্গী-সন্ত্রাসী বলা হচ্ছে। দুঃখজনক হলেও সত্য যে, এই অন্যায্য ও অন্যায় কর্মকান্ডের প্রতিবাদে যে মুসলিম দেশগুলোর ভূমিকা রাখার কথা, তারাই আজ বিশ্বমোড়লদের ক্রীড়নক হিসেবে কাজ করছে। সম্মান নিয়ে বাঁচতে চাইলে অবশ্যই মুসলমানদের নিরবতা ভাঙতে হবে, রুখে দাঁড়াতে হবে সাম্রাজ্যবাদ।

    মাওলানা আবুল হাসানাত আমিনী দলমত নির্বিশেষে দেশের নবীপ্রেমিক মুসলমানদের ফ্রান্সের সকল পণ্য বর্জন ও মহানবী (সা.)-ইজ্জত রক্ষায় প্রতিবাদ অব্যহত রাখার আহবান জানান।

    Facebook Comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২১৩
    ১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
    ২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
    ২৮২৯৩০  
  • ফেসবুকে আওয়ারকণ্ঠ২৪.কম