• শিরোনাম


    প্রবাসীদের ঈদ

    নেয়ামত উল‍্যাহ তারিফ: | ২৬ এপ্রিল ২০২২ | ১:২৫ অপরাহ্ণ

    প্রবাসীদের ঈদ

    ঈদ নিকটবর্তী, সঙ্গে আনছে শান্তি আর আনন্দের সওগাত। সব ভেদাভেদ ও পরিচয় ভুলে সেই দিন মানুষ কেবল একে অপরকে বুকে জড়াবে। কবি কাজী নজরুল ইসলাম বলেছেন, ‘আজ ভুলে যা সব হানাহানি, হাত মেলা হাতে’। এই আয়োজন তো জীবনেরই উয্যাপন। এই উৎসব জীবনকে নতুন করে রাঙানোর উৎসব। সব সংকীর্ণতা ও ভেদাভেদ ভুলে একে অপরের সঙ্গে মিলিত হওয়ার উৎসব। পরস্পরের বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক গড়ে ওঠার এক মহান উপলক্ষ ঈদ। ঈদের আগমনী সুরেও বেজে চলেছে মানুষে মানুষে মিলনের এই আকুতি। চিরচেনা এই উৎসবটি প্রবাসীদের নিকট কেমন ? কেমন করে কাটে তাদের দিনটি, রাতটি ? তাদের সেই অনুভূতি তুলে ধরা হলো এই প্রতিবেদনে।

    সৌদি আরব প্রবাসী মো. মাঈন উদ্দিন মাহবুব বলেন, ঠিক সময়ে পরিবারে ঈদের টাকা পাঠাতে পারলেই প্রবাসীদের হৃদয় আনন্দ-উচ্ছ্বাসে মেতে ওঠে। ঈদে পরিবারের মুখে হাসি দেখলে আমরা আনন্দে বিভোর হয়ে যাই। ঈদের সারাদিন প্রবাসীর মনটা পড়ে থাকে পরিবারের কাছে। প্রবাসে কর্মব্যস্ততার মাঝেও আমাদের মনটা থাকে দেশে।



    ইতালি প্রবাসী মো. বাহার উদ্দিন বলেন, ঈদের আনন্দে দেশে সবাই যখন আত্মহারা, তখন আমরা স্মৃতিতে আচ্ছন্ন থাকি। মনে পড়ে যায় চিরচেনা গ্রামে ঈদ উদযাপনের স্মৃতিগুলো। নামাজ শেষে পরিবার-পরিজনের সঙ্গে কথা বলে থাকি। তাদের আনন্দের মাঝে খুঁজে পাই নিজের ঈদ আনন্দখানি। পরিবারে ঈদের খরচ পাঠিয়ে আত্মতৃপ্ত হই।

    ইতালি প্রবাসী মো. আকতার হোসেন বলেন, বাংলাদেশি অধ্যুষিত এলাকাগুলোতে কিছুটা জাঁকজমকপূর্ণভাবে ঈদ উদযাপন হয়। মোটামুটি সবাই একে অপরের সঙ্গে পরিচিত। রাতে সবাই একসঙ্গে আড্ডা দিয়ে থাকি। যাঁরা এখানে পরিবার নিয়ে থাকেন তাঁরা কিছুটা আনন্দ অনুভব করলেও বাকিরা আনন্দহীন ঈদ কাটাচ্ছেন বলে মনে হয়। তাঁদের কাছে ঈদ মানেই কষ্ট। আপনজনকে কাছে না পাওয়ার দুঃখ তাঁদের ঈদের আনন্দকে বেদনায় পরিণত করে।

    Facebook Comments Box

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২১৩
    ১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
    ২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
    ২৮২৯৩০৩১  
  • ফেসবুকে আওয়ারকণ্ঠ২৪.কম