• শিরোনাম


    নিজেকে শেষ করাটাই কি একমাত্র সমাধান ? -আবদুর রহমান বুলবুল

    লেখক : আবদুর রহমান বুলবুল | ০১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ | ৫:০২ পূর্বাহ্ণ

    নিজেকে শেষ করাটাই কি একমাত্র সমাধান ? -আবদুর রহমান বুলবুল

    যে জীবন আমি নিজে তৈরি করিনি সে জীবন নেয়ার অধিকার আমারে কে দিল? প্রেম করলাম, বিয়ে করলাম, যখন দেখলাম প্রেমিকা কিংবা বউ অনৈতিক বা মর্ডান শব্দে চিট, তাকে ছেড়ে না দিয়ে নিজেকে শেষ করাটাই কি একমাত্র সমাধান?

    বউ/প্রেমিকা পৃথিবীর সবচেয়ে সুন্দরী হোক, কিংবা হোক পৃথিবীর সবচেয়ে ক্ষমতাশালী কেউ কিন্তু যে কোনো ধর্মের বিধানেই তাকে তালাক দেবার আইনি অধিকার আমার আছে। আমি যখন বুঝলাম তার সাথে আমার বা আমার সাথে তার যাচ্ছে না, তবে কিসের এত মোহমায়া?



    কিছুদিন আগে বাংলাদেশের এক কিংবদন্তী সঙ্গীতজ্ঞ মারা গেলেন। উঁনার ব্যক্তিগত জীবনের একটি ঘটনা শুনে প্রচণ্ড নাড়া দিয়েছে। ঘটনাটা এক্সাক্টলি মনে নেই তবে সারাংশ এমন। ওনি যখন বুঝতে পারলেন ওনার সহধর্মিণী এক্সট্রা ম্যারাইটাল অ্যাফেয়ার্সে জড়িত খুব সুন্দরভাবে তাকে বললেন, ‘যাকে ভালোবাসো তাকে রেখে আমার সাথে কেন? তুমি যাকে ভালোবাসো তার সাথেই থাকো। ভালোবাসার এমন অপমান আমার পক্ষে সম্ভব নয়।’ এবং যতদূর জানি তিনি নিজে তাঁর বউকে সেই প্রেমিকের হাতে তুলে দিয়েছিলেন।

    কি বর্তমানের একটা কিছু হইলেই ‘তোমারে ছাড়া বাঁচুম না’ সুইসাইডাল প্রেমিক সমাজ, এমনটা ভাবা যায়? আমাদের যে বড়ভাই আজকে আত্মহত্যায় প্রেমের এই সমাধান খুঁজেছেন তিনি হয়তো এটা চিন্তাই করেননি, ভালোবাসা মানে শুধু ভালোবাসাই নয় নিজে ভালো থাকাও, আপনকেও ভালবাসা ৷

    শুধু একটি কথাই বলেছি, ‘ভুলেও আর এমন চিন্তা করো না! ইহা সমাধান নয়।’

    জগতে প্রেম প্রীতি ভালোলাগা ভালোবাসা চিরন্তন। আদম হাওয়া থেকে যে ভালোবাসার শুরু তা চলবে পৃথিবীর শেষদিন পর্যন্ত। কেউ বিয়ের আগে ভালোবাসবে কেউবা বিয়ের পরে (নিজ স্বামীকে/স্ত্রীকে)। তবে এটা মনে রাখতেই হবে, পরকীয়া শব্দটা নতুন নয় বেশ পুরোনো। তবে তা আমাদের দাদী নানীর আমলে হয়তো এতটা প্রকট ছিল না। এখন আছে স্টার প্লাস, স্টার জলসা। এসব টিভি চ্যানেল পরকীয়ার বিভিন্ন ডাইমেনশন (ভাবীর সাথে দেবর, শালীর সাথে দুলাভাই, অফিসের বসের স্ত্রীর সাথে কর্মচারী…) নিয়ে যারা সিরিয়াল বানায় কিন্তু এতে করে সমাজের উপর, ব্যক্তি মানুষের উপর যে প্রভাব পড়ে তা হয়তো সিরিয়াল সংশ্লিষ্ট কেউ কল্পনাও করে না। করার কারণও দেখি না, দর্শক যা খায় আদতে তারা তাই বানায়!

    মনে রাখা উচিত, কেউই শতভাগ নিখুঁত নয়। আমরা পার্টনার হিসেবে ঐশ্বরিয়ার মতো সুন্দরী চাই, চাই হিলারী ক্লিনটনের মতো প্রতিষ্ঠিত ক্ষমতাশালী, চাই মাদাম মেরীর মতো মেধাবী অথচ আমাদের বাবা মা’রা এক অদ্ভুত ভালোবাসার শক্তিতে অশিক্ষিত কিংবা স্বল্প শিক্ষিত পার্টনার নিয়ে কতই না সুখী। সুখী হতে ঐশ্বরিয়ার মতো সুন্দরী লাগে নারে মন, কৃষ্ণকলি হলেও হয়, শুধু সুন্দর একটি মন পেলেও একটা জীবন পার করে দেয়া যায়।

    এসিড নিক্ষিপ্ত বাঁকাত্যারা মুখেও অনেকে ভালোবাসার ছোঁয়া খুঁজে পায়। কি দরকার ইউএসএমইলি করা নামকরা প্রতিষ্ঠিত ডাক্তার যদি সম্পর্কে কমিটমেন্টই না থাকে। কি দরকার সেই কমিটমেন্টহীন মেয়ের জন্য নিজের জীবন বিসর্জন দেয়া?

    মানসিক অসুস্থ এই সমাজের সবাই মানসিকভাবে স্ট্যাবল হোক। সঙ্গীর সামান্য হঠকারিতায় না ভেঙ্গে নতুন কাউকে সঙ্গী করুক। আর যারা এখনও এমনতর হঠকারিতার শিকার তারা শিক্ষা নিক এইসব ঘটনা থেকে।

    আচ্ছা এমন সব আত্মঘাতী সিদ্ধান্তের কি কোনো সমাধান নেই। আছে এবং অবশ্যই আছে। সৃষ্টিকর্তার প্রতি অমোঘ বিশ্বাস এসব ঘটনা শূণ্যের কোঠায় নিয়ে আসতে পারে।

    আপনি মানসিক সমস্যায় আছেন, পরিবার পরিজন, বিশ্বস্ত বন্ধুবান্ধবের সাথে শেয়ার করুন। এতে সমস্যা হলে মানসিক রোগ বিশেষজ্ঞের শরণাপন্ন হোন। তবুও প্লিজ মরবেন না ভাই। বেঁচে থাকুন হাসিমুখে।

    আজকে শুধু একটি সিদ্ধান্ত নিন, ‘জীবনে যত প্রতিকূলতাই আসুক নিজ হাতে জীবন বিসর্জন দিবো না।’প্রতিটি প্রাণের আলো ভালোবাসার পরিপূর্ণতায় পরিপূর্ণ হোক প্রতিদিন। শেষ করছি একটি কথা দিয়ে, ‘জীবন সুন্দর, অসম্ভব সুন্দর। শুধু দেখার চোখটা সুন্দর হতে হয়।’

    (মানসিক) সুস্থ থাকুন, সুন্দর থাকুন, ভালো থাকুন।

    কার্টেসী বুলবুল সাবর ভাই

    Facebook Comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২১৩১৪১৫১৬
    ১৭১৮১৯২০২১২২২৩
    ২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
    ৩১  
  • ফেসবুকে আওয়ারকণ্ঠ২৪.কম