• শিরোনাম


    নবীনগরের কনিকাড়ায় বিয়ের প্রলোভনে ছাত্রীকে ধর্ষণ, শিক্ষক গ্রেপ্তার।

    রিপোর্ট: এস.এম অলিউল্লাহ, নবীনগর প্রতিনিধি | ০২ জুলাই ২০১৯ | ১১:৫৫ অপরাহ্ণ

    নবীনগরের কনিকাড়ায় বিয়ের প্রলোভনে ছাত্রীকে ধর্ষণ, শিক্ষক গ্রেপ্তার।

    ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলার শিবপুর ইউনিয়নের কনিকাড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের ইংরেজী শিক্ষক কাজী মুরাদ এর বিরুদ্ধে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে নবম শ্রেণীর ছাত্রীকে ধর্ষণ করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এই ঘটনায় পুলিশ মঙ্গলবার ওই শিক্ষককে গ্রেপ্তার করে জেল হাজতে প্রেরণ করেন। নবীনগর থানা ও এলাকাবাসির সূত্রে জানা যায়, নবম শ্রেণীর এক ছাত্রী কনিকাড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের ইংরেজী শিক্ষক কাজী মুরাদের নিকট প্রায় দুই মাস ধরে প্রাইভেট পড়তে ছিল। সোমবার সন্ধ্যায় ওই ছাত্রীকে শিক্ষক কাজী মুরাদ বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে হাসপাতাল পাড়ায় তার ভাড়া বাসায় নিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষন করে। পরে ওই ছাত্রীকে রাতে নবীনগর সমবায় মার্কেটের সামনে ছেড়ে যাওয়ার সময় বিষয়টি প্রকাশ পায়। ওই রাতেই স্কুল কর্তৃপক্ষ ও আত্মীয় স্বজন বিষয়টি মীমাংসা করার চেষ্ট করে ব্যার্থ হয়ে ওই শিক্ষককে গতকাল মঙ্গলবার থানায় সোর্পদ করে। শিক্ষকের বাড়ি উপজেলার রতনপুর গ্রামে শেখের পাড়া। এই ঘটনায় মেয়ের চাচা আনোয়ার হোসেন বাদী হয়ে নবীনগর থানায় মামলা করে। প্রধান শিক্ষক আমিরুল ইসলামকে বারবার মোবাইল ফোনে চেষ্টা করে পাওয়া যায়নি।
    ওসি (তদন্ত) রাজু আহম্মেদ ঘঁনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, ঘঁনাটি দুঃখ জনক। অভিযুক্ত শিক্ষক কাজী মুরাদকে গ্রেপ্তার করে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। একজন শিক্ষককের কাছে যদি একজন ছাত্রী নিরাপদ না হয় তবে সমাজের কোন প্রান্তে গেলে ছাত্রীরা নিরাপত্তা পাবে।

    Facebook Comments



    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২১৩১৪১৫
    ১৬১৭১৮১৯২০২১২২
    ২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
    ৩০৩১  
  • ফেসবুকে আওয়ারকণ্ঠ২৪.কম