• শিরোনাম


    ধর্ষণ শুন্যের কোটায় নামিয়ে আনতে আবশ্যক ‘ইসলামী আইন’ -মুফতি ফয়জুল্লাহ

    | ০৭ জানুয়ারি ২০২০ | ৩:৫৫ অপরাহ্ণ

    ধর্ষণ শুন্যের কোটায় নামিয়ে আনতে আবশ্যক ‘ইসলামী আইন’ -মুফতি ফয়জুল্লাহ

    রাজধানীর কুর্মিটোলায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী ধর্ষণঃ
     

    প্রতিদিন কোন না কোন ভাবে নারীরা নির্যাতন, নিপীড়ন,
    ধর্ষন, শ্লীলতাহানির শিকার হচ্ছে।



    সাম্প্রতিককালের আলোচিত ঘটনার মধ্যে গত রোববার রাতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের এক ছাত্রী ক্যাম্পাস থেকে বান্ধবীর বাসায় যাওয়ার পথে ধর্ষণের শিকার হন। রাজধানীর কুর্মিটোলায় ধর্ষণের এ ঘটনা ঘটে। এটা বিচ্ছিন্ন কোন ঘটনা নয়। এ ধরনের ঘটনা অহরহ ঘটছে। বহু ভয়াবহ ঘটনার মধ্যে এটাও একটি পৈশাচিক ঘটনা। যৌন হয়রানি, নির্যাতনের শিকার বহু নারী পরিবার, সমাজ ও লোকলজ্জার ভয়ে তা প্রকাশ করে না।

    নারী ধর্ষন, নির্যাতন, নিপীড়ন, শ্লীলতাহানির মতো ঘৃণ্য, নিকৃষ্ট অপরাধে অপরাধী হায়েনাদের রুখতে এই ধর্ষণের ঘটনাসহ সব অপরাধের বিচারে আইনের কঠোর প্রয়োগ করতে হবে। এমন বিচার করতে হবে,যা দৃষ্টান্ত হয়ে থাকবে। আমরা বিশ্বাস করি এই ক্ষেত্রে সবচেয়ে কার্যকর হবে ইসলামী আইন। ইসলামী আইন কার্যকর করার মাধ্যমে নারীর প্রতি সহিংসতা শুন্যের কোটায় নামিয়ে আনা সম্ভব এবং সর্বক্ষেত্রে ইসলামী শিক্ষা বাধ্যতামূলক করার মাধ্যমে নারীকে সম্মান করতে শেখানো সম্ভব।

    এই ঘৃণ্য ও নিকৃষ্ট অপরাধীদেরকে নির্মুল করা রাষ্ট্রের দায়িত্ব। এই হায়েনাদের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রের জিহাদ আবশ্যক।

    Comments

    comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০
    ১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
    ১৮১৯২০২১২২২৩২৪
    ২৫২৬২৭২৮২৯৩০৩১
  • ফেসবুকে আওয়ারকণ্ঠ২৪.কম