• শিরোনাম


    ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে সহায়ক দারুচিনি। আওয়ার কণ্ঠ

    | ২৮ অক্টোবর ২০১৮ | ৫:৪৩ অপরাহ্ণ

    ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে সহায়ক দারুচিনি। আওয়ার কণ্ঠ

    রান্নায় স্বাদ বাড়াতে গরম মসলার জুড়ি নেই। পোলাও, মাংস, সেমাই থেকে শুরু করে আরও অনেক রান্নায় দারুচিনি ব্যবহার করা হয়। শুধু স্বাদ নয়, দারুচিনি গুণেও অনন্য। বিভিন্ন গবেষণায় দেখা গেছে, স্বাদবর্ধক এই মসলাটির অনেক স্বাস্থ্যগুণ রয়েছে।নিয়মিত এটি খেলে বা ব্যবহার করলে শরীরের নানা উপকার পাওয়া যায়। যেমন-

    ১. যারা হাড়ের জয়েন্ট বা গাঁটের ব্যথায় ভুগছেন, তারা হালকা গরম পানিতে এক চা-চামচ মধু আর ২ চা চামচ দারুচিনি গুঁড়া মিশিয়ে, ব্যথার জায়গায় দিনে দুইবার মালিশ করুন। কয়েকদিনের মধ্যে ব্যথা কমে যাবে।



    ২. পেটের সমস্যা দূর করতে দারুচিনির কোনও বিকল্প নেই।দারুচিনির সঙ্গে মধু মিশিয়ে খেলে অ্যাসিডিটি কমে যাবে। পেট পরিষ্কার রাখতে, রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে দারুচিনির সঙ্গে হরিতকি গুঁড়া মিশিয়ে খান।

    ৩. প্রতিদিন নিয়ম করে অর্ধেক চা চামচ দারুচিনি গুঁড়া খেলে রক্তে খারাপ কোলস্টেরলের মাত্রা কমে যায়, শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রিত থাকে। টাইপ টু ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য দারুচিনি গুঁড়া বিশেষ উপকারী।

    ৪. ঠাণ্ডা লেগে গলা ব্যথা বা খুশখুশে কাশিতে মধু মেশানো চায়ের সঙ্গে দারুচিনি গুঁড়া মিশিয়ে খেলে আরাম পাবেন।

    ৫. আর্থরাইটিসের সমস্যায় ভুগলে এক কাপ গরম পানির মধ্যে দুই চা চামচ মধু আর দারুচিনি গুঁড়া মিশিয়ে সকাল ও বিকেলে খান। এতে ব্যথা অনেকটা কমে যাবে।

    ৬. ব্রণের সমস্যা থাকলে এক ভাগ দারুচিনির সঙ্গে তিন ভাগ মধু মিশিয়ে ব্রণের উপরে লাগান। ২৫ মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন। এই মিশ্রণ মুখের অতিরিক্ত তেল শুষে নেয়, রক্ত সঞ্চালনের হার বাড়ায়। টানা ২ থেকে ৩ দিন এটা করলে ব্রণের সমস্যা কমে যাবে। ত্বকে কোনও দাগ থাকবে না।

    Facebook Comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১
    ১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
    ১৯২০২১২২২৩২৪২৫
    ২৬২৭২৮২৯৩০  
  • ফেসবুকে আওয়ারকণ্ঠ২৪.কম