• শিরোনাম


    ঝিনাইদহে স্বামী ও শ্বাশুড়ীর বিরুদ্ধে গৃহবধুকে হত্যার অভিযোগে লাশ নিয়ে সড়ক অবরোধ।

    ইমরান হোসেন: ঝিনাইদহ থেকে | ২২ এপ্রিল ২০১৯ | ৬:২৩ অপরাহ্ণ

    ঝিনাইদহে স্বামী ও শ্বাশুড়ীর বিরুদ্ধে গৃহবধুকে হত্যার অভিযোগে লাশ নিয়ে সড়ক অবরোধ।

    ঝিনাইদহের শৈলকুপা উপজেলার গোয়াল খালি গ্রামে স্বামী-শ্বাশুড়ীর বিরুদ্ধে গৃহবধুকে হত্যার অভিযোগ ও থানায় মামলা না নেওয়ার প্রতিবাদে লাশ নিয়ে সড়ক অবরোধ করেছে নিহতের স্বজনরা।
    সোমবার শৈলকুপা উপজেলার ভাইট বাজারে মহাসড়কে লাশ রেখে ঝিনাইদহ-কুষ্টিয়া মহাসড়ক অবরোধ করে শত শত গ্রামবাসী।
    সকাল সাড়ে ৮টা থেকে বেলা ১১ টা পর্যন্ত এই অবরোধ চলতে থাকে।
    এই সময়ে অবরোধকারীরা সোনিয়ার হত্যাকারী অভিযোগ করে সোনিয়ার শ্বাশুরী মর্জিনা খাতুন ও শ্বশুর ফিরোজের ফাঁসি দাবী করে বিক্ষোভ করতে থাকে।
    নিহতের স্বজনেরা অভিযোগ করেন, প্রেমের সর্ম্পকের জেরে প্রায় ৮ মাস আগে উপজেলার গোয়ালখালি গ্রামের ফিরোজ হোসেনের মেয়ে ১০ম শ্রেণীর ছাত্রী সোনিয়ার বিয়ে হয়, একই গ্রামের রাস্তার এপার ওপার বাদশা হোসেনের ছেলে সজিবের সাথে। বিয়ের পর থেকে সোনিয়াকে বিভিন্ন সময় নির্যাতন করে আসছিল শ্বশুরবাড়ির লোকজন। সোনিয়াকে বাবার বাড়ীর কারো সাথে যোগাযোগ করতে দিতোনা শ্বশুরবাড়ির লোকজন।
    সব সময় একটি জালানা হীন ঘরে আটকে রাখত তাকে।
    এরই জের ধরে রোববার সকালে সোনিয়াকে হত্যা করে গলায় ওড়না দিয়ে ঘরে ঝুলিয়ে রেখে ঘরে তালা দিয়ে পালিয়ে যায় পরিবারের লোকজন।
    খবর পেয়ে নিহতের পিতা-মাতা পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠায়।
    এ ঘটনায় পরিবারের লোকজন থানায় হত্যা মামলা দিতে গেলে পুলিশ মামলা গ্রহণ না করে অপমৃত্যু মামলা রেকর্ড করে। সেই সাথে আটক হওয়া শ্বাশুড়ী ও শ্বশুরকে ছেড়ে দেয়।এ ঘটনার প্রতিবাদে সোমবার সকালে মহাসড়কে লাশ রেখে অবরোধ করে তার স্বজনরা। পরে থানায় মামলা ও দোষীদের গ্রেফতারে পুলিশের আশ্বাসে প্রায় দেড় ঘন্টা পরে সড়ক অবরোধ তুলে নেওয়া হয়।ঝিনাইদহের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শৈলকুপার সার্কেল তারেক আল মেহেদি বলেন, গতকাল সোনিয়া আত্মহত্যা করেছিল বলে প্রাথমিক তদন্তে পাওয়া গেছে। লাশের ময়নাতদন্ত করা হয়েছে ময়নাতদন্তের রিপোর্ট এলে বিস্তারিত জানা যাবে। তিনি আরও বলেন, সোনিয়ার একটি ডায়রি পাওয়া গেছে সেখানে উল্লেখ আছে তার মৃত্যুর জন্য কে কে দ্বায়ি। ময়নাতদন্তের রিপোর্টে হত্যার বিষয় এলে হত্যা মামলা আর আত্মহত্যার রিপোর্ট এলে আত্মহত্যার প্ররোচনার মামলা নেওয়া হবে।

    Facebook Comments



    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২১৩১৪১৫১৬
    ১৭১৮১৯২০২১২২২৩
    ২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
    ৩১  
  • ফেসবুকে আওয়ারকণ্ঠ২৪.কম