• শিরোনাম


    জাফলংয়ের জামাই সুমন সাংবাদিকতার আড়ালে চাঁদাবাজিই তার মূল পেশা

    নিজস্ব প্রতিবেদক | ১২ আগস্ট ২০২০ | ১১:৫৬ পূর্বাহ্ণ

    জাফলংয়ের জামাই সুমন সাংবাদিকতার আড়ালে চাঁদাবাজিই তার মূল পেশা

    সিলেটের জাফলং-পিয়াইন নৌপথে জামাই সুমান নামে প্রসিদ্ধ একজন।
    তার বিরুদ্ধে চাঁদাবাজি রাহাজানী ও নানা সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের বিস্তর অভিযোগ স্হানীয় পাথর শ্রমিক ও এলাকাবাসীর। এমরান হোসেন সুমন নামের ওই ব্যক্তি এলাকায় জামাই সুমন নামে অধিক পরিচিত।

    তার বাড়ি সিলেট জেলার গোয়াইনঘাট থানার জাফলং মেলার মাঠে। জাফলং ও পিয়াইন নদীতে চলাচল কারী পাথর-বালুবাহী শত শত নৌকা ও বলগেট থেকে নিয়মিত চাঁদা আদায়ের পাশাপাশি সাংবাদিকতার নাম ভাঙ্গিয়ে পাথর ও স্টোনক্রাশার মালিকদের কাছ থেকে বখরা আদায় তার ও তার চক্রের নিত্যনৈমিত্তিক কাজ। জাফলং ও পিয়াইন নদী এলাকার ছোট-বড় সব চাঁদাবাজ চক্রের নিয়ন্ত্রক এই জামাইচক্র।



    এমরান হোসেন সুমন ওরফে জামাই সুমন নিজেকে পাথর ব্যবসায়ী কাম সাংবাদিক পরিচয় দিলেও মূলত পাথর মহালে চাঁদাবাজিই তার মূল পেশা বলে জানিয়েছে স্হানীয়রা, চাঁদাবাজির মাধ্যমে দৈনিক লাখ লাখ টাকা কামাই করে বর্তমানে জ্ঞাত আয়বহির্ভুত শতকোটি টাকার মালিক তিনি। এক সময় নুন আনতে পান্তা ফুরায় এমন পরিবারের সন্তান ছিলো এই জামাই সুমন। জ্ঞাত আয়বহির্ভুত টাকার জোরে গোয়াইনঘাট প্রেসক্লাবের সদস্য পদও বাগিয়ে নিয়েছেন তিনি। দুটি অনলাইন পোর্টাল, একটি টিভি চ্যানেল ও একটি ভুইফোঁড় দৈনিকের পরিচয়ই জামাই সুমনের চাঁদাবাজি ও বখরাবাজির প্রধান হাতিয়ার। মিডিয়াগুলোর পরিচয়েই স্থানীয় প্রশাসন ও মিডিয়া কর্মীদের উপর প্রভাব বিস্তার করে বেপরোয়া চাঁদাবাজি ও সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড চালিয়ে যাচ্ছেন তিনি। অথচ সাংবাদিকতা তার কোন পেশাই নয়।
    তার চাঁদাবাজি,রাহাজানী ও সন্ত্রাসী বিভিন্ন কর্মকান্ডর অনুসন্ধানে রয়েছে সিলেট নিউজক্লাবের একটি টিম।

    Facebook Comments Box

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২১৩১৪১৫
    ১৬১৭১৮১৯২০২১২২
    ২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
    ৩০৩১  
  • ফেসবুকে আওয়ারকণ্ঠ২৪.কম