• শিরোনাম


    চাটখিলে মৎস্যজীবী লীগের সভাপতির কুকীর্তির প্রতিবাদ করায় উপজেলার সহ-সভাপতির বিরুদ্ধে মিথ্যাচারের অভিযোগ

    মোঃ বেল্লাল হোসেন নাঈম, চাটখিল-সোনাইমুড়ী (নোয়াখালী) প্রতিনিধিঃ | ১১ নভেম্বর ২০২০ | ১:০৩ পূর্বাহ্ণ

    চাটখিলে মৎস্যজীবী লীগের সভাপতির কুকীর্তির প্রতিবাদ করায় উপজেলার সহ-সভাপতির বিরুদ্ধে মিথ্যাচারের অভিযোগ

    নোয়াখালীর চাটখিল উপজেলা আওয়ামী মৎস্যজীবীলীগের সহ-সভাপতি আমিনুল ইসলাম স্বপন সাংবাদিকদের কে জানান উপজেলা আওয়ামী মৎস্যজীবী লীগের সভাপতি আব্বাস উদ্দিন তার বিরুদ্ধে মিথ্যা বানোয়াট কথা কল্পকাহিনী প্রচার করছে।
    স্বপন বলেন বঙ্গবন্ধুর আদর্শ মেনে আওয়ামী লীগের নিয়ম-মাফিক সমস্ত রাজনৈতিক কর্মকাণ্ডে অংশগ্রহণ করি, তাই আমার রাজনৈতিক কর্মকাণ্ডে সন্তুষ্টি হয়ে জেলা ও উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ আমাকে উপজেলা আওয়ামী মৎস্যজীবী লীগের সহ-সভাপতি পদ প্রদান করেন।

    আব্বাস উদ্দিনের কুকীর্তির প্রতিবাদ করা আমার রাজনৈতিক সুনাম নষ্ট করার জন্য আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা অপপ্রচার চালাচ্ছে আমি মিথ্যা ও বানোয়াট অপপ্রচারের বিরুদ্ধে নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই।



    নোয়াখালীর চাটখিল উপজেলা আওয়ামী মৎস্যজীবী লীগের সাধারণ সম্পাদক নাসির উদ্দিন পিন্টু বলেন, উপজেলার আওয়ামী মৎস্যজীবী লীগের সভাপতি আব্বাস উদ্দিনের বিরুদ্ধে অসংখ্য অভিযোগ শুনতে পাই । তিনি বলেন আব্বাস উদ্দিনের অব্যাহতি চেয়ে নোয়াখালী জেলা আওয়ামী মৎস্যজীবী লীগের সভাপতি/সদস্য সচিব বরাবর অভিযোগ পত্র প্রেরণ করেন, যাহাতে উপজেলা আওয়ামী মৎস্যজীবী লীগের কমিটির ৩০জন সদস্য স্বাক্ষরিত।
    পিন্টু বলেন, বর্তমানে দেশে ধর্ষণ ও নির্যাতন মারাত্মক ব্যাধি হিসেবে আখ্যায়িত। আব্বাস উদ্দিনের বিরুদ্ধে ধর্ষণ নারী নির্যাতন শিশু বলৎকার গরু চুরি সহ আরো অনেক অসামাজিক কার্যকলাপে লিপ্ত, যাহা দলের আদর্শ ও নিয়ম শৃঙ্খলা ভঙ্গের মতো গুরুতর অপরাধ।

    স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, বিগত কয়েক মাস পূর্বে পাশ্ববর্তী গ্রামের ১০/১২ বছরের এক ছেলেকে বলৎকার নারী ধর্ষন গরু চুরিসহ অসামাজিক কর্মকান্ডে সাথে জড়িত থাকার কারণে পাঁচগাও ইউনিয়নের সাবেক মেম্বার জালাল, জামাল ও বর্তমানে সিরাজ মেম্বার কয়েকবার সালিশী বৈঠকে আব্বাস উদ্দিনকে জরিমানা ও শারীরিক শাস্তি প্রদান করে এলাকা থেকে বিতাড়িত করে দেয়া হয়।

    আব্বাস উদ্দিনের কুকীর্তির কারণে রাজনৈতিক অঙ্গনে আওয়ামী লীগের সুনাম নষ্ট হয় বলে আওয়ামী লীগ ও অঙ্গসংগঠনের তৃণমূলের নেতৃবৃন্দ মনে করেন, তাকে দল থেকে বহিষ্কারের জন্য জেলা আওয়ামী মৎস্যজীবী লীগের আহ্বায়ক/ সদস্য সচিব এর নিকট লিখিত আবেদন করেন।

    আব্বাস উদ্দিনের অপরাধ ও কুকীর্তির প্রতিবাদ করায় উপজেলা আওয়ামী মৎস্যজীবী লীগের সহ-সভাপতি আমিনুল ইসলাম স্বপন বিরুদ্ধে মিথ্যা অপপ্রচার করে পত্রিকা সংবাদ প্রচার করানো হয়। যাহা উদ্দেশ্যপ্রণোদিত বানোয়াট বলে উপজেলা আওয়ামী মৎস্যজীবী লীগের নেতৃবৃন্দ মনে করে এবং এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানায়। তার বিরুদ্ধে রাজনৈতিক সিদ্ধান্ত গ্রহণের জন্য দলীয় নেতৃবৃন্দের দৃষ্টি আকর্ষণ করছেন।
    উল্লেখ্য, গত ২ নভেম্বর দৈনিক সমকাল পত্রিকা উপজেলা আওয়ামী মৎস্যজীবী লীগের সাধারণ সম্পাদক নাসির উদ্দিন পিন্টু পৌর কমিটির সভাপতি নুর আলম নয়নের যোগসাজোগে বিএনপির ওয়ার্ড সাধারণ সম্পাদক আমিনুল ইসলাম স্বপন কে অর্থের বিনিময়ে উপজেলা আওয়ামী মৎস্যজীবী লীগের সহ-সভাপতি পদ দেওয়া হয়।

    এ ব্যাপারে স্বপন বলেন, আমি গত ২০১০ সালে আওয়ামী লীগের যোগদান করি বঙ্গবন্ধুর আদর্শে অনুপ্রাণিত হয়ে। আওয়ামী লীগে যোগদান করার পর থেকে গত কয়েকটি স্থানীয় সরকার নির্বাচনে আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকের এজেন্ট হিসেবে দায়িত্ব পালন করি।

    নোয়াখালী জেলা আওয়ামী মৎস্যজীবী লীগের কমিটির যুগ্ন আহবায়ক মামুনুর রশিদ বলেন, আব্বাস উদ্দিনের এলাকায় খোঁজখবর নিয়ে যতটুকু জানতে পারলাম সে একজন খারাপ মানুষ, তার ব্যাপারে শীঘ্রই সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেওয়া হবে। টাকার বিনিময়ে পদ দেওয়া হয়েছে এ কথার সত্যতা পাওয়া যায়নি।

    Facebook Comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২১৩
    ১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
    ২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
    ২৮২৯৩০  
  • ফেসবুকে আওয়ারকণ্ঠ২৪.কম