• শিরোনাম


    কে কার কাছে ক্ষমা চায় গোটা জাতি তা দেখার অপেক্ষায় । এড. আনিসুর রহমান মঞ্জু

    | ০৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮ | ১:২৯ পূর্বাহ্ণ

    কে কার কাছে ক্ষমা চায় গোটা জাতি তা দেখার অপেক্ষায় । এড. আনিসুর রহমান মঞ্জু

    আওমামীলীগ বলছে- খালেদা জিয়াকে মুক্তি পেতে হলে রাষ্টপতির কাছে দোষ স্বীকার করে ক্ষমা চাইতে হবে।কে কার কাছে ক্ষমা চায় তা দেখার অপেক্ষায় গোটা বাংলাদেশ।খালেদা জিয়াকে ছাড়াই গতকাল পল্টনের সমাবেশ দেখে আওয়ামী নেতারা আবোল তাবুল বকছেন। নির্বাচন যতই ঘনিয়ে আসছে ততই তাদের ঘুম হারাম হয়ে যাচ্ছে।এলো এলো এলোরে খালেদা জিয়া এলোরে- এলো এলো এলোরে তারেক জিয়া এলোরে- এলো এলো এলোরে বিএনপি এলোরে- এলো এলো এলোরে জনগন এলোরে-খালেদা তারেক আর জনগনের ভীতি তাদের এমনভাবে পেয়ে বসেছে যে হয়ত আর দিন কয়েক পর আওয়ামী রুই কাতলা শ্রেনীর নেতারা ঘুমের ঔষধ খাওয়া ছাড়া আর ঘুমাতে পারবেননা।খালেদা জিয়াই বাংলাদেশে একমাত্র নেত্রী যিনি আপোষহীন।যার অন্তর জুড়ে বাংলাদেশ আর এদেশের মানচিত্র।এ মানচিত্রের বাইরে তাঁর কোন ঠিকানা নেই।জনগনই তাকে কারাগার থেকে মুক্ত করে আবার রাষ্টীয় ক্ষমতায় অধিষ্ঠিত করবে। সুতরাং তাকে কারো কাছে ক্ষমা চাওয়ার কোন কারন নেই।ক্ষমা তাদেরকেই চাইতে হবে যারা এদেশে বহু গুম খুন আর বিচারের নামে অবিচারের হোতা।দেশনেত্রী খালেদা জিয়া কোনদিন কোন সংকট বা ক্রান্তিকালে কারো রক্তচক্ষু বা কঠিন ধমকে এদেশের জনগনকে ছেড়ে কোনদিন পালিয়ে যাননি। ওয়ান ইলাভেনের সময় কারা এদেশ ছেড়ে পালিয়ে ছিল আবার পর্দার অন্তরালে ফকরুদ্দিন মইনুদ্দিন এর সাথে গোপন আতাত করে ক্ষমতায় এসেছে তা এদেশের জনগন জানে।সেজন্যই এযাবৎ কাল পর্যন্ত ঐ সময়ের জবরদখলকারী জনগনের ক্ষমতা হরনকারী ফকরুদ্দিন মইনউদ্দিনের বিচার আওয়ামীলীগ করেনি।বরং তাদের বিদেশ পালিয়ে যাওয়ার সুযোগ করে দিয়েছে।ফকরুদ্দিন মইনউদ্দিনরা খালেদা জিয়াকেই প্রথম তাদের অপকর্মের বিচার না করার প্রতিদানে বিএনপিকে ক্ষমতায় ফিরিয়ে আনার প্রতিশ্রতি চেয়েছিল কিন্তু খালেদা জিয়া সে প্রস্তাব ঘৃনাভরে প্রত্যাখান করায় আওয়ামীলীগ তা লুফে নেয়।বিড়াল আর শেয়ালের মত ভীরু যারা- বহু গুম খুন আর বিচারের নামে অবিচারের হোতা যারা- তারাই দূর্যোগ দেখলে এদেশ ছেড়ে পালিয়ে যাবে।বিএনপি আর খালেদা জিয়া এদেশে ছিল আছে এবং থাকবে।ক্ষমতার দম্ভে যারা বলছেন বিএনপির সাথে কোন আলোচনা করবেননা সময় দ্রুত গড়িয়ে যাচ্ছে সেদিন বেশী দূরে নয় আলোচনা করার সময়ও আপনারা আর পাবেননা।বন্দুকের নল নয় জনগনই সকল ক্ষমতার উ‍্যস।জনতার শক্তির কাছে যুগে যুগে বন্দুক পরাজিত হয়েছে এবারও হবে। এটা আমার কথা নয়। ইতিহাসের কথা।

    লেখকঃ সাধারণ সম্পাদকঃ নবীনগর উপজেলা জাতীয়তাবাদী দল (বি.এন.পি)



    Facebook Comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২১৩১৪১৫
    ১৬১৭১৮১৯২০২১২২
    ২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
    ৩০৩১  
  • ফেসবুকে আওয়ারকণ্ঠ২৪.কম