• শিরোনাম


    কওমি মাদ্রাসায় রাজনীতি নিষিদ্ধ, কি ভাবছেন আলেম বুদ্ধিজীবীরা?

    | ২৬ এপ্রিল ২০২১ | ১২:০৫ অপরাহ্ণ

    কওমি মাদ্রাসায় রাজনীতি নিষিদ্ধ, কি ভাবছেন আলেম বুদ্ধিজীবীরা?

    সামগ্রিক পরিস্থিতি বিবেচনায় হাইয়ার সিদ্ধান্তকে ইতিবাচক মনে হয়েছে: মাওলানা_শরীফ_মুহাম্মদ (দা. বা.)

    ইনস্টিটিউট অব জার্নালিজম অ্যান্ড দাওয়া বাংলাদেশের পরিচালক, মাওলানা শরীফ মুহাম্মদ প্রতিবেদককে বলেছেন, কওমি মাদরাসার ছাত্র-শিক্ষকগণ প্রচলিত সর্বপ্রকার রাজনীতি থেকে মুক্ত থাকবে- এই সিদ্ধান্তের সঠিক ব্যাখ্যা দায়িত্বশীলরাই দিতে পারবেন। তবে আমার কাছে মনে হয়েছে বর্তমানে পরিস্থিতির যে প্রতিকূলতা তাতে যারা রাজনীতির সাথে জড়িত এবং মাঠ পর্যায়ে সক্রিয়, রাজনৈতিক সংগঠন হোক অথবা আধা রাজনৈতিক, অরাজনৈতিক বা অন্য কোন দল, তারা কেউ বর্তমানে এ সংকট থেকে উত্তরণে ভূমিকা রাখতে পারছেন না।



    এমন পরিস্থিতিতে অন্য বেশ কিছু শর্তের সাথে হাইয়াতুল উলইয়ার যেই শর্তটি যুক্ত করেছে, আপাতদৃষ্টিতে একে কিছুটা ভিন্ন রকম মনে হলেও পরিস্থিতির প্রতিকূলতা দূর করে মাদ্রাসাগুলো খুলে দেওয়া, পরিবেশের মধ্যে এক ধরনের আনুকূল্য ফিরিয়ে আনা, গ্রেফতারি, সরকারি রুষ্টতা, হয়রানি বন্ধ, সাহরি ও ইফতারে মানুষের নিরাপত্তা নিশ্চিতের খাতিরে এই ছোট্ট একটি বিষয়কে এত বড় করে দেখার সুযোগ আছে বলে আমার মনে হয় না’ বলেছিলেন মাওলানা শরীফ মুহাম্মদ।

    এছাড়া তার মতে দ্বিতীয় আরেকটি বিষয় হলো, এই বৈঠকে হেফাজতের বড় বড় নেতা যেমন মাওলানা নুরুল ইসলাম জিহাদী, মাওলানা আতাউল্লাহ হাফেজ্জী, মাওলানা মাহফুজুল হকসহ আরও অনেকে উপস্থিত ছিলেন, যেহেতু তাদের উপস্থিতিতেই শর্তটি রাখা হয়েছে, তাই বোঝা যায় তারা সবদিক বিবেচনা করেই সিদ্ধান্তটি মেনে নিয়েছেন।

    শরীফ মুহাম্মদ বলছেন, বৈঠকে বলা হয়েছে প্রচলিত ধারার রাজনীতি থেকে মুক্ত থাকার কথা। উলামায়ে কেরাম যদি প্রচলিত ধারার রাজনীতির বাইরে গিয়ে অন্য কোনো ধরনের সঠিক, সুষ্ঠু, পদ্ধতি বের করতে পারেন, যেখানে প্রচলিত ধারার রাজনীতি থাকবে না- তাহলে হয়তোবা দলগুলো এই শর্ত থেকে বেরিয়ে এসে চাইলে কার্যক্রম চালাতেও পারে।

    Facebook Comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    ০৯ অক্টোবর ২০১৯

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
    ১০১১১২১৩১৪
    ১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
    ২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
    ২৯৩০৩১  
  • ফেসবুকে আওয়ারকণ্ঠ২৪.কম