• শিরোনাম


    ঈমাম-মুয়াজ্জিনদের দেয়া প্রধানমন্ত্রীর কল্যান তহবিলের টাকা অনিয়মের অভিযোগ ইমামের বিরুদ্ধে

    মোহাম্মদ দেলোয়ার হোসেন, জেলা প্রতিনিধি,নোয়াখালী | ০২ জুলাই ২০২০ | ৯:৪১ অপরাহ্ণ

    ঈমাম-মুয়াজ্জিনদের দেয়া প্রধানমন্ত্রীর কল্যান তহবিলের টাকা অনিয়মের অভিযোগ ইমামের বিরুদ্ধে

    লক্ষ্মীপুরের রামগতি উপজেলার বিবিরহাট এলাকার এক ঈমামের বিরুদ্ধে প্রধানমন্ত্রীর কল্যান তহবিলের টাকা নিয়ে অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে।সাম্প্রতিক করোনা দূর্যোগে ইমাম-মুয়াজ্জিনের জন্য প্রধানমন্ত্রীর কল্যান তহবিল থেকে বরাদ্দ দেয়া হয়।সঠিক ঈমামরা যাতে টাকা পায় সেই জন্য বন্টনের দায়িত্ব দেয়া হয় উপজেলা প্রশাসনের নিকট। কিন্তু উপজেলা প্রশাসনের চোখ ফাঁকি দিয়ে একজনকে একাধিক মসজিদের ঈমাম বানিয়ে টাকা আনার অপচেষ্টা এবং লিস্ট করার দায়িত্বে থাকা এক ঈমামের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে অনিয়মের।

    বিবিরহাটের মোল্লা পাড়া জামে মসজিদের ঈমাম হাফেজ মোঃফছিয়ল আলমকে চর গোসাই গ্রামের ঈমাম মসজিদের লিস্ট করার দায়িত্ব দেয় ইসলামি ফাউন্ডেশন।
    ইসলামি ফাউন্ডেশনের কথা মতো সততার সাথে ঐ এলাকার সকল মসজিদের ইমাম-মুয়াজ্জিনের নামের একটি তালিকা করে জমা দেওয়ার উদ্দেশ্যে রওনা দেন ফছিয়ল হুজুর।



    কিন্তু শারীরিক অসুস্থতা বোধ করায় লিস্টটি জমা দিয়ে আসার অনুরোধ করেন বিবিরহাট বাজার মসজিদের ঈমাম হাফেজ খালেদ সাইফুল্লাহকে।।
    খালেদ সাইফুল্লাহ লিস্ট জমা দেয় ঠিকই কিন্তু তৈরীকৃত লিস্ট থেকে মোল্লাপাড়া জামে মসজিদের ঈমামের নাম কেটে এবং ঈমাম নয় এমন একজনকে একাধিক মসজিদের ঈমাম বানিয়ে ঐ ফরম জমা দেয় ইসলামি ফাউন্ডেশনের নিকট।

    পরে বরাদ্দকৃত টাকা আসলে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নজরে বিষটি আসলে তিনি একাধিক মসজিদের ইমাম একজনই দেখে সমস্যা দেখে টাকা উপজেলা চেয়ারম্যানের নিকট দিয়ে দেন।পরে উপজেলা চেয়ারম্যান সঠিক ইমামদের ঐ টাকা বন্টন করে দেন।।

    কিন্তু প্রধান লিস্ট তৈরী করা মোল্লাপাড়া জামে মসজিদের ইমাম ফছিয়ল হুজুর লিস্টে নাম না থাকায় এবং নিজের নামের টাকা না আসায় জিজ্ঞেস করেন যাকে তিনি লিস্ট জমা দিতে দেন অর্থাৎ বিবিরহাট বাজার মসজিদের ইমাম খালেদ সাইফুল্লাকে।

    গত পরশুদিন বিকালে বিবিরহাট পশ্চিম বাজারের পাঞ্জেগানা মসজিদে হাফেজ খালেদ সাইফুল্লাকে পেয়ে তিনি জিজ্ঞাসাবাদ করায় কোন উত্তর দেয় নি খালেদ সাইফুল্লা এবং তার সাথে থাকা একাধিক মসজিদের ইমামের জায়গায় নাম থাকা ব্যাক্তি মোঃ নেছার খনার ক্ষেপে যায় ফছিয়ল হুজুরের উপর।

    তাদের কথার এক পর্যায়ে বিবিরহাট বাজারের ওষুধ ব্যবসায়ী এবং পশ্চিম বাজারের পাঞ্জেগানা মসজিদের সভাপতি ডাঃ নাছির “আমার মসজিদ থেকে বের হ তুই” বলে ধাক্কা দিতে দিতে মসজিদ থেকে বের করে দেন বৃদ্ধ সৎ ইমাম মোঃ ফছিয়ল আলমকে।।এই ঘটনা নিয়ে কারো কাছে বিচার বা নালিশ না করার হুমকি দেয় ইমাম খালেদ সাইফুল্লাহ।। প্রসঙ্গত মাওলা খালেদ সাইফুল্লাক রামগতি উপজেলা ইসলামী শাসনতন্ত্রের নেতা।সেই সুবাদে তিনি বিভিন্ন সময় ইমাম মুয়াজ্জিন মহলে রাজনৈতিক ক্ষমতার দাপট দেখায় এমন অভিযোগও উঠেছে তার বিরুদ্ধে।

    একজন বয়স্ক এবং ন্যায় নীতিতে অটল থাকা ইমামকে লাঞ্চিত করায় মোল্লা পাড়া জামে মসজিদের মুসল্লি এবং এলাকাবাসীর মধ্যে তীব্র ক্ষোভ বিরাজ করছে।।
    এলাকাবাসী এই দূর্নীতি অনিয়মের সাথে জড়িত ইমাম খালেদ সাইফুল্লাল এবং পাঞ্জেগানা মসজিদের সভাপতি ডাঃ নাছিরের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন।।

    Facebook Comments Box

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০
    ১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
    ১৮১৯২০২১২২২৩২৪
    ২৫২৬২৭২৮২৯৩০  
  • ফেসবুকে আওয়ারকণ্ঠ২৪.কম