• শিরোনাম


    ইন্দোনেশিয়া থেকে ২৫০টি রেলকোচ কিনেছে বাংলাদেশ। আওয়ার কণ্ঠ

    | ১৪ অক্টোবর ২০১৮ | ৫:১২ পূর্বাহ্ণ

    ইন্দোনেশিয়া থেকে ২৫০টি রেলকোচ কিনেছে বাংলাদেশ। আওয়ার কণ্ঠ

    ইন্দোনেশিয়া থেকে অনেক মজবুত ও অত্যাধুনিক ২৫০টি রেলকোচ কিনেছে বাংলাদেশ। এই নভেম্বরেই প্রথম চালানে দেশে আসবে নতুন ১৮টি কোচ।

    এ বিষয়ে ইন্দোনেশিয়ান রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন রেল প্রস্তুতকারক পিটি ইন্ডাস্ট্রি কেরেতা এপি (ইনকা) বলছে, তাদের কোম্পানি থেকে নেওয়ার জন্য অতিরিক্ত মজবুত ও অত্যাধুনিক ২৫০টি রেলকোচের অর্ডার করেছে বাংলাদেশ।
    গত বৃহস্পতিবার ইনকার ফিনিশিং ম্যানেজার আগুং বুদিয়ানো ইঞ্জিনগুলো পরিদর্শনে কারখানায় যান। এসময় সেখানে তিনি বলেন, বাংলাদেশের কেনা এসব কোচ অনেক বড় আকারের এবং শক্ত বা মজবুত অবকাঠামোতে নির্মাণ করা হয়েছে। সেইসঙ্গে ঘন ওয়াল এবং ছাদ করা হয়েছে তাতে। যা অন্যান্য কোচের চেয়ে প্রায় দ্বিগুণ মজুবত এবং আধুনিক হবে।
    বাংলাদেশর জন্য প্রস্তুত করা ওই কোচগুলো বড় আকারের পাশাপাশি অনেক লম্বও করা হয়েছে বলে আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমে উল্লেখ করেন আগুং বুদিয়ানো।
    তিনি বলেন, রেলে যখন যাত্রীতে ভিড় লেগে যায় তখন আসন না পেয়ে অনেকেই ছাদে উঠে যান। আর সেজন্য এসব কোচের ছাদগুলো ঘন (মজবুত) করে তৈরি করা হয়েছে।
    তিনি বলেন, কোচগুলোর প্রত্যেকটিতে রাখা হয়েছে ৯০টি আসন। যা সাধারণত ৬৪ আসনের থাকে। ইন্দোনেশিয়ায় ৬৪ আসনের কোচই ব্যবহার করা হয়ে থাকে। এছাড়া বাংলাদেশে যদি একটি রেলে ২২টি কোচ ব্যবহার করা হয়ে থাকে, সেক্ষেত্রে এটার সমান আসন বা লম্বা করতে হলে নতুন অত্যাধুনিক ওই কোচগুলোর ১৬টি যোগ করলেই হবে।
    আগুং বুদিয়ানো ব্যাখ্যা করে বলেন, অর্ডার করা ২৫০টি কোচের মধ্যে আসছে নভেম্বরেই প্রথম চালানে বাংলাদেশে যাবে ১৮টি। যার মধ্যে রয়েছে ইকোনমি ও এক্সিকিউটিভ ক্লাস, রেস্টুরেন্ট এবং স্লিপার সুবিধা।
    দেশটির হাউস অব রিপ্রেজেন্টেটিভ কমিশনের চতুর্থ বিভাগের পরিবহন কর্মকর্তা আজম আজমান এসব কোচ নির্মাণে ইনকার অনেক প্রশংসা করেছেন। তিনি বলছেন, কোচগুলো চাহিদা এবং রফতানিযোগ্য করে প্রস্তুত করতে সক্ষম হয়েছে ইনকা।



    Facebook Comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২১৩১৪১৫১৬
    ১৭১৮১৯২০২১২২২৩
    ২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
    ৩১  
  • ফেসবুকে আওয়ারকণ্ঠ২৪.কম