• শিরোনাম


    আনন্দ ও উদ্দীপনায় শেষ হল কাতারে বাংলাদেশী স্কুলের বিজয় মেলা

    রিপোর্ট: কে.এম.সুহেল আহমদ, কাতার প্রতিনিধি | ২৮ ডিসেম্বর ২০১৯ | ২:৩৮ পূর্বাহ্ণ

    আনন্দ ও উদ্দীপনায় শেষ হল কাতারে বাংলাদেশী স্কুলের বিজয় মেলা

    মহান বিজয় দিবস। বাঙালীর হাজার বছরের ইতিহাসে সবচেয়ে গৌরব ও অহংকারের দিন। দীর্ঘ নয় মাস বিভীষিকাময় সময়ের পরিসমাপ্তির দিন। লক্ষ লক্ষ বীর মুক্তিযোদ্ধাদের রক্তস্রোত, স্বামী-সন্তানহারা নারীর অশ্রুধারা, দেশের শ্রেষ্ঠ সন্তান বুদ্ধিজীবীদের হত্যা, আর বীরাঙ্গনাদের সীমাহীন ত্যাগের বিনিময়ে নয় মাসের যুদ্ধ শেষে অর্জিত হয়েছিল মহান এই বিজয়। ৪৯ বছর আগে বিজয়ের এই দিনে বিশ্বের মানচিত্রে স্বাধীন সার্বভৌম বাংলাদেশের অভ্যুদয় বাঙালি জাতিকে এনে দিয়েছিল আত্মপরিচয়ের ঠিকানা।

    লাল সবুজের নিশান উড়িয়ে এসেছিল বাংলায় বিজয়। সেই দিনের স্বরণার্থে প্রতিবারের ন্যায় বর্ণীল আয়োজন ও আনন্দ উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে হাজারো প্রবাসী বাঙ্গালী রেমিটেন্সযোদ্ধাদের অংশগ্রহণে শেষ হয়ে গেল কাতারস্থ বাংলাদেশী একমাত্র শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ‘বাংলাদেশ এম. এইচ.এম স্কুল এন্ড কলেজে’র’ বিজয় মেলা।
    বাংলাদেশ দূতাবাস কাতার, বাাংলাদেশ কমিউনিটি ও বাংলাদেশ এম.এইচ.এম স্কুল এন্ড কলেজ’র যৌথ আয়োজনে
    লাখো শহীদের স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে গত ২১ ডিসেম্বর( শুক্রবার) বিকেলে স্কুল ক্যাম্পাসে জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশণ ও প্রধান অতিথি মান্যবর রাষ্ট্রদূত জনাব আসুদ আহমদ বেলুন উড়ানোর মধ্য দিয়ে উদ্বোধন করেন বিজয় মেলা অনুষ্ঠানের। এসময় উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ এম.এইচ.এম স্কুল এন্ড কলেজ’র পরিচালক ল্যাফটেনেন্ট কমান্ডার আনোয়ার খুরশীদ(অবঃ), অধ্যক্ষ জসিম উদ্দীন, বাংলাদেশ কমিউনিটির সভাপতি আনোয়ার হোসেন আকন্দ ও বাংলাদেশ স্কুলের শিক্ষক-শিক্ষিকাবৃন্দ সহ আরো অনেকে।



    মেলা আরম্ভ হওয়ার পর থেকেই নতুন আর পুরোনো শিক্ষার্থী ও হাজারো কাতার প্রবাসী বাংলাদেশী দর্শণার্থীদের পদচারনায় মুখরিত হয়ে উঠেছিল পুরো অনুষ্ঠানস্থল। একদিকে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় লালিত বিজয় উৎসব অন্যদিকে বাংলাস্কুলের শিক্ষার্থীদের মনোমুগ্ধকর সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশনে মুগ্ধ হন অনুষ্ঠানে আগত অতিথিরা। বিজয় দিবসকে ঘিরে স্কুল প্রাঙণে উৎসবের আমেজ বিরাজ করছিল।তবে দেশের চাইতে যেন প্রবাসে উৎসাহ-উদ্দীপনা ব্যাপক ছিল ।

    মেলায় আসা স্টল গুলোকে সাজানো হয়েছিল রং তুলির আল্পনায় নতুন এক রুপে।দীর্ঘদিন পর পুরনো ক্যাম্পাসে ফিরে আনন্দিত শিক্ষার্থী ও দর্শণার্থীরা। বন্ধুদের সঙ্গে একে অপরে সেলফী ও ছবি তুলে স্মৃতিচারণ করে সময় পার করেছিলেন তারা।
    এদিকে মেলাতে আসা ‘মেইড ইন বাংলাদেশ ২০২০’ নামের একটি স্টল।এর আয়োজক ভলান্টিয়ার মোছাঃ ইসরাত আরা ইউনুস ও তাসমিয়া তাহসিন প্রিয়াংকা জানান, এটি মূলত বাংলাদেশ ফোরাম কাতার( বিএফকিউ) এর উদ্যোগে ও বাংলাদেশ দূতাবাস- কাতারের সহযোগিতায় অনুষ্ঠিতব্য বাংলাদেশী পণ্যের একক বানিজ্যিক প্রদর্শণী। যা আরম্ভ হবে আগামী ২৮-৩০ জানুয়ারী সকাল ১০ টা থেকে রাত ৯ টা পর্যন্ত দোহা এক্সিভিশন এন্ড কনভেনশন সেন্টারে। এর আগাম পরিচিতি হিসেবে মেলায় আসা।

    “প্রবাসর মাটিতে বিজয় দিবসর বিজয় মেলাত আইয়া মনো ওর যেন দেশর মাটিত উবা আছি। আরো খুশি লাগের ফুরানা ক্লাসমেট হক্কল ফাইয়া।”
    সিলেটী ভাষায়এমন মন্তব্য করলেন আধ্যাত্মিক রাজধানী সিলেট জকিগঞ্জের বাসিন্দা কাতার ইউনিভার্সিটির বিএ শিক্ষার্থী তোয়াহাছিন বেগম।

    প্রায় ৩৯ বছর হয়ে গেল প্রবাস জীবন ১৯৮২ সাল থেকে শুরু করে প্রতি বছর স্কুলের বিজয় মেলা দেখতে আসি শুধু দেশ মাতৃকার ভালবাসার টানে বলে জানালেন, মেলায় আসা দর্শণার্থী নোয়াখালীর মোঃ জামান হোসেন এবং তার সাথে আসা পাঁচ বছরের শিশু ফাইজা বলে, এখানে এসে মনে হচ্ছে বাংলাদেশে আছি।

    কাতারে বাংলাদেশী স্কুলের বিজয়মেলা দেখে অভিভূত কাতার সফরে আসা সিলেট মৌলভীবাজারের বড়লেখা উপজেলার ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ তাজ উদ্দীন। তার সাথে আছেন কাতার কেন্দ্রীয় যুবলীগ সভাপতি আজাদ আহমদ সেলিমসহ সফর সাথীরা।

    এছাড়া ও স্কুলের দ্বাদশ শ্রেণীর শিক্ষার্থী রেহা বেগম(চট্টগ্রাম), সামিয়া(ঢাকা) ও আনিকা(ঢাকা) এবং একাদশ শ্রেণীর ইমা বেগম(সিলেট) সহ তাদের অনেক সহপাঠীদের নিয়ে এসেছেন বিজয় মেলার আনন্দ ভাগাভাগী করে নিতে।
    মাতৃভূমির ভালবাসার টানে বিদেশের মাটিতে বিজয় মেলা নিজের দেশের মত লাগছে বলে জানালেন দশম শ্রেণীর শিক্ষার্থী মাসুদ,হাসান,আশফাক, সামির ও জামাল।

    সময় থেমে নেই। প্রযুক্তি ও এখন অনেক এগিয়ে
    বর্তমানে ইন্টারনেটের কল্যাণে ঘরে বসেই পাওয়া যাচ্ছে কেনাকাটার সুযোগ।আর এমন ক’টি অনলাইন শপিং স্টল মেলাতে যোগ দিয়েছিল। যেগুলোর মধ্যে রয়েছে বিভিন্ন ডিজাইনের রঙ-বেরঙের দেশী- বিদেশী কাপড়ের সমাহার। সেগুলোর মধ্যে
    মোছাঃ খাদিজা খাঁন এর ‘খাঁন এন্ড হক বুটিক’;
    তাসনুবা,নাজিরুন,আবিদা ও তনু বেগমের ‘ প্রবাসী বুটিক হাউস’;
    লিমা বেগমের ‘ কালেকশন মার্ট’; সোহেলী বেগমের ‘ বাংলার বুটিক’; ফারহা ফেরদৌসীর ‘পানকৌড়ী’;
    তৌফিকা আনাম চৌধুরীর ‘ আহলিয়াজ এবং
    কাপড়ের ডিজাইনের উপর ২০০৫,২০০৭ ও ২০১২ ইং সনে ৩ টি প্রথমআলো এওয়ার্ড প্রাপ্ত প্রতিষ্ঠান এডভোকেট শামীমা বেগমের স্টল ‘ ঘরনা বুটিক’।

    বিদেশের মাটিতে দেশীয় পন্যের বাজারজাত করণের বড় বড় প্রতিষ্ঠানের মধ্যে আব্দুল খালেক খন্দকারের ‘ ষ্টার হোম ইন্টার ন্যাশনাল( ডেনিশ ফুড্স)’; কান্ট্রি ম্যানেজার শেখ মোঃ কাজলের ‘সজীব কর্পোরেশন’ ; এবং কান্ট্রি ম্যানেজার ময়নুল হোসাইনের ‘ প্রাণ ফুড কোয়ালীটি ‘ নামের ষ্টল এসে যোগ দিয়েছে মেলায়।

    শুধু তাই নয়, বাংলাদেশের সংস্কৃতি বাউল অঙ্গণকে বিশ্বের দরবারে পরিচিতি লাভ করাই মূখ্য উদ্দেশ্য বলে জানালেন মেলায় অংশগ্রহণ করতে আসা ‘ চিরন্তন বাউল সংঘ দোহা- কাতার’ নামের ষ্টলের সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট মামুন আহমদ নূর।

    বাংলাদেশী কাতার প্রবাসীব্যাবসায়ীদের মধ্যে সেতু বন্ধন,সুসম্পর্ক উন্নয়ন,একে অপরের সাথে সহযোগিতার মনোভাব, বাংলাদেশী পণ্য ও দ্রব্য সামগ্রীর মার্কেটে বিস্তার লাভসহ বাংলাদেশে বিদেশীদের বিনিয়োগে উদ্ধৃত্ব করার নিমিত্তে কাতার প্রবাসী বাংলাদেশী ব্যাবসায়ীদের নিয়ে সংগঠিত ব্যাবসায়ী সংগঠন ‘ বাংলাদেশ বিজনেস কাউন্সিল দোহা- কাতার’ নামের ও একটি ষ্টল এসে যোগ দিয়েছিল মেলায়।

    ‘হৃদয়ে বাংলাদেশ তরুণ সংঘ কাতার’, ঢাকা পুচকা হাউস, স্পার্কার ট্রেডিং,ঘরোয়া রেষ্টুরেন্ট,ষ্টলফোরটি,রকমারী পিঠা ঘর,রুপসী বাংলা রেষ্টুরেন্ট, গাজীখাঁন ষ্টল,আপন রেষ্টুরেন্ট, ও মিষ্টিমেলা রেষ্টুরেন্ট নামের রকমারী ষ্টল এসে যোগ দিয়েছিল মেলায়।
    এমনকি বাংলাদেশের সফল উদ্যোক্তা ইকবাল বাহার স্যারের উদ্যোক্তা সংগঠন ‘ নিজে বলার মত গল্প’ নামের একটি গ্রুপ ও এসেছিল মেলায়।
    মেলার ষ্টল পরিদর্শন করতে আসা প্রধান অতিথি রাষ্ট্রদূত আসুদ আহমদ বলেন, আমরা সবাই আজ বিজয়ের চেতনায় উদ্বোদ্ধ হয়েছি। ১৮ ডিসেম্বর কাতার যেভাবে তাদের জাতীয় দিবস পালন করেছে ঠিক সেভাবে ১৬ ডিসেম্বর আমরা আমাদের বিজয় দিবস পালন করেছি। সুৎরাং বিজয়ের চেতনায় উদ্বোদ্ধ হয়ে কাতারের মত দেশ থেকে শিক্ষা নিয়ে আমাদের মাতৃভূমি সোনার বাংলাদেশকে নিয়ে কাঙ্খিত সাফল্যের দিকে নিয়ে যেতে পারি এটাই হউক আমাদের সকলের প্রত্যাশা। তিনি সকল দেশবাসী ও কাতার প্রবাসী বাংলাদেশীদের বিজয়ের শুভেচ্ছা জানান।

    Facebook Comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১
    ১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
    ১৯২০২১২২২৩২৪২৫
    ২৬২৭২৮২৯৩০  
  • ফেসবুকে আওয়ারকণ্ঠ২৪.কম